ক্যাটেগরিঃ পাঠাগার

IMG_0615

তমাল বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম ১৯৮১। ইংরাজি সাহিত্যে স্নাতকোত্তর এই কবি পেশায় শিক্ষক। শৈশব কেটেছে শহর থেকে দূরে।গ্রামে।এক সময় বিভূতিভূষণ একা একা হেঁটে বেড়িয়েছেন এই সব গ্রামে।বনগ্রামে পরে আগমন। তমাল শূন্য দশকের অন্যতম সেরা প্রতিভা।না না,তমাল এ কথা বলতে যাবে কেন, এ কথা বলছি আমরা যাঁরা কবিতাভুক, যাঁরা কবিতার রাজ্যটাকে মোটামুটি চিনি বা জানি। তমাল বরং প্রচার বিমুখ মানুষ।নিজেকে লুকিয়ে রেখে নিজেকে গুটিয়ে ক্রমশ নির্মাণ করে চলেছেন কাব্যের রেশম। তাকে কিছু বলতে হয়না। তিনি প্রান্তিক মানুষ। তাঁর জমিতে জো-এসেছে বহু যুগ আগে। আর তিনি লাঙল নিয়ে আজো ফসল ফলিয়ে চলেছেন। কখনও সে জমিতে বারুদের গন্ধ পেয়ে থমকেছেন,ভয় পেয়েছেন, এমনকি শিশুর মতো কেঁদে ফেলেছেন হাউহাউ করে। ‘সমস্ত সন্ধ্যার শেষে’ তমালের প্রথম কাব্যগ্রন্থ।২০০৩ -এ কলকাতা বইমেলায় ‘ফসিল’ থেকে বের হয়।দাম পাঁচ টাকা।মাত্র ১২ টি কবিতা ছিল। বইটি এখন দুষ্প্রাপ্য। বইটি আজ ‘অচেনা যাত্রী’- তে প্রকাশিত হল । পড়ুন বন্ধুরা।
http://achenayatri.blogspot.in/p/blog-page_4.html

slide