ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 
12004119_10206421652532978_7977080903571334812_n

“দেহ পাবি মন পাবি না ” বাংলা সিনেমার সস্তা একটা শ্লোগান । বস্তির ছেলে, রিক্মা চালক কিংবা রাস্তায় বেড়ে ওঠা নেশাখোরদের মুখেই এই শ্লোগান এখন আর মানায় না । অল্প শিক্ষিত কিংবা নিরক্ষর এই মানুষগুলোও এখন অনেক স্মার্ট।  স্মার্ট হতে পারল না কেবল শিক্ষা কে পণ্য বানানোর কারিগর প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের তথাকথিত শিক্ষার্থীরা । ২০১৫ তে এসে জাতির জন্য তাদের অনবদ্য অবদান “দেহ পাবি মন পাবি কিন্তু ভ্যাট পাবি না” । প্রতিবাদের ভাষা আর যাই হোক এটা হতে পারে না ।

এটা কি রিক্স চালক সমিতির আন্দোলন না ঝাড়ুদারদের অধিকার রক্ষার আন্দোলন টা বুঝতে পারা সহজ। কিন্তু এমন নোংরা শ্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড দেখলে কিংকর্তব্যবিমুর না হয়ে উপায় কি । রাস্তা ব্লক করে রেখে জন দুর্ভোগ বাড়ানো যায়। রাজধানী অচল করা যায়। সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যায়। কিন্তু বিদ্যার রঙিন থলে টা ফুটো হয়ে মূর্খতার কালো বিড়াল বের হয়ে গেলে তা তো আর আটকে রাখা যায় না ।

সরকারের কিছু নীতি নির্ধারক ছাড়া শিক্ষায় ভ্যাটের বিপক্ষে সবাই। পুরো বাংলাদেশ। কিন্তু আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই সব ধনীর দুলালরা জাতির কাছে নিজেদের এমন ভাবে তুলে ধরেছে তা কেবল লজ্জার।

12003906_845834468845125_8563252364357408692_n

বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিকরা টিউশন ফি বৃদ্ধি করলে তাদের আর কোন প্রতিবাদের ভাষা থাকে না । বিশ্ববিদ্যালয় ভেদে এই ফি একেক রকম। মানে শিক্ষার মূল্য বিশ্ববিদ্যালয় ভেদে আলাদা । কোথাও বেশি। কোথাও কম মূল্যেই “পণ্য” হয়ে ওঠা শিক্ষা পাওয়া যায়। সার্টিফিকেটও জুটে।

উচ্চ শিক্ষায় আগ্রহী শিক্ষার্থীদের আগ্রহ কে পুঁজি করেই রমরমা ব্যবসা করে যাচ্ছে এই সব বিশ্ববিদ্যালয়। যথাযথ তদারকির দায়িত্ব থাকলেও উদাসিন সরকার। মৌনতার স্টেডিয়ামে এক নীরব দর্শক বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। যা ইচ্ছে তাই করে যাচ্ছে নামধারী এই সব বিশ্ববিদ্যালয় । কিন্তু সরকার যখন দেখছে যে এখানে রমরমে, ভ্যাট আরোপ করলে মন্দ হয় না ।

আপনি যেভাবেই ব্যাখ্যা দেন না কেন উচ্চ শিক্ষার শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদের ভাষা কখনও এমন হতে পারে না। প্রতিবাদের ভাষা হওয়া উচিৎ রুচিশীল । মার্জিত । গ্রহণযোগ্য । বিদ্যমান সমস্যার দ্রুত সমাধান হোক। প্রস্তাবিত ৭.৫% ভ্যাট সরকার তুলে নিবে এমনটাই প্রত্যাশা করছি।