ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

 

মোগ্যাম্বোর মিস্টার ইন্ডিয়ার পেছনে টম অ্যান্ড জেরির মতো ছোটাছুটি আর মিস্টার ইন্ডিয়ার স্রেফ লাপাত্তা হয়ে যাওয়ার ঘটনা কিছুটা হলেও যেন ওবামা ও যুক্তরাষ্ট্রের ঘটনার সঙ্গে মিলে যায়। মিস্টার ইন্ডিয়ার ছিল স্রেফ অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার শক্তি, আর বিন লাদেনের ছিল দৃশ্যমান থেকেও চোখের আড়ালে থাকার ক্ষমতা। যদিও অবশেষে এসে ধরা খেতেই হলো তাকেও।

পুরনো দিনের হিন্দি ছবি দেখেননি এমন মানুষ হয়তো একটু কমই পাওয়া যাবে। বিশেষ করে মিস্টার ইন্ডিয়া চলচ্চিত্রটি না দেখলেও এর নাম নিশ্চয়ই শুনে থাকবেন অনেকেই। অমরেশপুরি ও অনিল কাপুর সঙ্গে শ্রী দেবীর কালজয়ী এক ছবি এটি। সম্প্রতি জানা গেছে, মিস্টার ইন্ডিয়া টু আসছে। তবে আমরা সেই বিষয়ে আলোচনা করবো না। মিস্টার ইন্ডিয়া ছবিতে ‘মোগ্যাম্বো খুশ হুয়া’ সংলাপটি ছিল সেসময়ের অন্যতম হিট। অনেকের মুখে মুখেই কথাটা শোনা যেত। কেবল ডায়ালগের অর্থ দেখে নয়, অমরেশপুরির মন উজাড় করা হাসির সঙ্গে কথাটা এতোই মানাতো যেন সংলাপটা কেবল তাকেই মানাবে, আর কাউকে নয়।

বাস্তব ঘটনাকে আমরা মিস্টার টুইন টাওয়ার বলে ডাকতে পারি। কারণ বিখ্যাত ডকুমেন্টারি ফিল্ম নির্মাতা মাইকেল ম্যুরের “ফারেনহাইট ৯/১১” ডকুমেন্টারিটি দেখলে অনেকের মনেই সন্দেহটা পাকাপোক্ত হবে যে এই ঘটনা বুশ প্রশাসনই ঘটিয়েছে। এছাড়াও ন্যাশনাল জিওগ্রাফিকসহ আরো বেশকিছু চ্যানেলে এ নিয়ে ডকুমেন্টারি দেখানো হয়েছে। বিশ্ব গণমাধ্যমে প্রশ্নও উঠেছে হাজার হাজার মাইল দূরের আফগানিস্তানের উপরে কেন চোখ পড়লো। আর যদি বিন লাদেনই দায়ী হয়ে থাকে, তাহলে বুশের পক্ষে বিন লাদেনকে খুঁজে বের করা এতোটা কষ্ট হওয়ারও কথা না। কারণ, বুশের সঙ্গে বিন লাদেন পরিবারের ব্যবসায়িক যোগাযোগ হিংসে করার মতো।

তবে সে যাই হোক, মিস্টার ইন্ডিয়া ছবির শেষটা মিস্টার ইন্ডিয়ারই জয় হলেও আমাদের বাস্তব দুনিয়ায় কিন্তু ওসামারই হার হলো। ওবামা যা বলছেন তা যদি সত্যি হয়ে থাকে, তাহলে বিশ্ব দেখলো আরেক মিস্টার টুইন টাওয়ারের ইতি। তবে পার্থক্য কিন্তু কেবল এতটুকুই নয়। মিস্টার ইন্ডিয়া ছবিতে মোগ্যাম্বো ছিল একজন; অমরেশপুরি। কিন্তু মিস্টার টুইন টাওয়ার ছবিতে অমরেশপুরি ছিল দু’জন। একজন জিডব্লিউডি বুশ, আরেকজন বারাক ওবামা।

আর শেষ হাসিটা হাসার সুযোগ পেলেন ওবামাই। নিজের নামের সঙ্গে ব্যাপক মিল থাকাকে লজ্জাজনক মনে না করেই তিনি হেসেছেন সেই আত্মতৃপ্তির হাসি, যেই হাসি কেবল এই সংলাপের সঙ্গেই মানায়ঃ

মোগ্যাম্বো..খুশ হুয়া!