ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

 

প্রথম প্রকাশঃ Good Luck for the Day of Departure

এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে চলে মিশরীয়দের বিক্ষোভ এবার আরো ভয়াবহ রূপ নিতে যাচ্ছে বলেই আপাতঃদৃষ্টিতে মনে হয়। শুক্রবারের মধ্যে ক্ষমতা ছাড়ার আলটিমেটাম দেয়া হলেও নির্লজ্জ প্রেসিডেন্ট মোবারক সস্থানে বহাল রয়েছেন। এ জন্য শুক্রবারকে মোবারকবিরোধী বিক্ষোভকারীরা ডে অফ ডিপার্চার বলে অভিহিত করে তারা দলে দলে প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেস বা প্রেসিডেন্টের প্রাসাদের দিকে এগোতে যাচ্ছে।

জানা গেছে, প্রায় বিশ লক্ষ মানুষ এই মার্চে অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেস তাহরির স্কয়ার থেকে ১০-১৫ কিলোমিটারের দূরত্ব। সেখানে গিয়ে বিক্ষোভকারীরা কী করবে তা এখনো স্পষ্টভাবে জানা যায়নি। এদিকে তাদের এগিয়ে যাওয়া সেনাবাহিনীও কোনোরূপ বাধা দেবে বলে মনে হচ্ছে না।

এদিকে এই মার্চের অনুরূপ হিসেবে নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কয়ারেও শুক্রবার বিকাল ৩.৩০-এ ডে অফ ডিপার্চার নামে র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে।

তাহরির স্কয়ারে জীবনযাত্রা ক্ষান্ত দিয়ে যারা দিনরাত এক করে মোবারকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে আছেন, তাদের স্বাগত জানাই। স্বাগত জানাই মিশরের সেনাবাহিনীকে, যারা জনগণকে সঙ্গ দিচ্ছেন। ধিক্কার জানাই নির্লজ্জ মোবারকের, যে প্রথমে সোশাল মিডিয়া, পরে ইন্টারনেট বন্ধ করে মানুষের মুখে তালা মারার ব্যর্থ চেষ্টা চালিয়েই ক্ষান্ত হয়নি, বরং এবার নিজের পালিত একদল মানুষরূপী কুকুরকে বিক্ষোভকারীদের মাঝে পাঠিয়ে তাহরির স্কয়ারকে যুদ্ধক্ষেত্র বানিয়েছে আর নিজে বসে দেশের দোহাই দিয়ে বলছে এখনই ক্ষমতা ছাড়লে মিশরের অবস্থার আরও অবনতি হবে।

একে বিশ্বের সবচেয়ে নির্লজ্জ মানুষ হিসেবে আখ্যা দেয়া উচিৎ। এখন আবার হঠাৎই গণহারে সাংবাদিক গ্রেফতার, নির্যাতন ও হুমকি দিয়ে তাহরির স্কয়ার ত্যাগ করানোর মাধ্যমে একটি মিডিয়া ব্ল্যাকআউট করার পরিকল্পনা করছে। তেমন কিছু সম্ভব হলে দেখা যাবে মিশরে কী হচ্ছে তা আর জানাই যাবে না। তাই দি হাফিংটন পোস্টসহ অনেক সংবাদমাধ্যমই ডে অফ ডিপার্চারে প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেসে কী হতে যাচ্ছে সে ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য না জানার আশঙ্কা করছে বলেও জানিয়েছে।

আবারও, মার্চে অংশগ্রহণকারীদের জন্য শুভ কামনা রইল।

সূত্রঃ আল-জাজিরা, দি হাফিংটন পোস্ট, এবিসি নিউজ।

প্রথম প্রকাশঃ Good Luck for the Day of Departure