ক্যাটেগরিঃ প্রযুক্তি কথা

isis22-e1447806907721

আইএসআইএসের (ISIS) বিরুদ্ধে  অনলাইন যুদ্ধ ঘোষণা করেছে বৈশ্বয়িক হেকটিভিস্ট দল ‘অ্যানোনিমাস’। ইতোমধ্যে তারা আইএসের ৫,৫০০ টুইটার অ্যাকাউন্ট (ইউটিউব ও টুইটারসহ ২০,০০০ এর বেশী) অকার্যকর করেছে বলে দাবীও তুলেছে। ফেসবুকও কম যায় না বলে মনে হচ্ছে। কেবল নামের কারণে আইএসআইএসের সদস্য সন্দেহে সম্প্রতি মার্কিন এক নারীর একাউন্ট ব্লক করে দিয়েছে ফেসবুক- নারীর নাম আইসিস অ্যাঞ্চালি (Isis Anchalee), পেশায় প্রকৌশলী। অ্যাঞ্চালি তাঁর টুইটারে লিখেছেন, “ফেসবুক মনে করে আমি সন্ত্রাসী”। এ যেন বলিউড তারকা শাহরুখ খানের সেই আত্মচিৎকারের প্রতিধ্বনি, “My name is Khan. I’m not a terrorist”। সম্প্রতি নাম বিভ্রাটের আরো একটি মজার ঘটনা ঘটেছে- ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলার ফরাক্কার বিন্দুগ্রামের অষ্টমী মণ্ডলের পিতার নাম “কংগ্রেস মণ্ডল”। ভারতের রাজনৈতিক দল “কংগ্রেস” এর সাথে বাবার নাম মিলে যাবার কারণে স্থানীয় একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ তাঁর ও তাঁর ভাইয়ের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছিল।

বাপে বড় শখ করে নিজের নাম জুড়ে দিয়ে পোলার নাম রেখেছে “ইমরান সাঈদ ইবনে সামাদ”। ইমরান সাঈদ বড় স্টাইলিশ মানুষ; ইমেইল, ফেসবুক, টুইটার সব সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নিজের নাম সংক্ষিপ্ত করে বানিয়েছে – আইএসআইএস। ইমরানের রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে, কী জানি কী হয়! অ্যাঞ্চালির পাঁচালি কীভাবে শেষ হবে, ইমরানের সবকিছু ব্লক হবে কী না-  ব্যক্তি পর্যায়ের এসব বিষয়ের চেয়ে  গোষ্ঠী পর্যায়ের অন্য একটি বিষয় আমাদেরকে ভাবিয়ে তুলতে পারে। যাদের নামের পেছনে ‘ইসলাম’ জোড়া আছে এবং সেটিকে ব্যবহার করে যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে একাউন্ট পরিচালনা করছে এ ঘোর কলিকালে ফেসবুক, টুইটার প্রভৃতি পরিচালনা পর্ষদ তাদের ‘ইসলাম’ এর উপরে কোনরূপ জটিলতা আরোপ করবে কী না, বা ‘অ্যানোনিমাস’ ভাইসাহেবেরা তাদের একাউন্ট হ্যাক করতে পারে কী না- এসব জিজ্ঞাসা সামান্যতম হলেও সন্দেহের দাবী রাখে। না, এসব কিছুই হবেনা, এটাই হোক আমাদের আশাব্যঞ্জক ভাবনা।

তবুও, যারা আইসিস অ্যাঞ্চালির ”আইসিস” নিয়ে বিভ্রান্ত হয়, “খান”কে সন্ত্রাসীর কাতারে দাঁড় করিয়ে দেয়, কংগ্রেস মণ্ডলের “কংগ্রেস” নিয়ে বিচলিত হয়, তাদের বুদ্ধিমত্তার চেয়ে “বিশেষ” দৃষ্টিভঙ্গি সদাই আমাদের বিচলিত করতে পারে।

======

‘মুসলিম’ ও ‘সন্ত্রাসী’ এবং ‘ইসলাম’ ও ‘চরমপন্থা’ — শব্দযুগলদ্বয় ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে একরকম সমার্থক দ্যোতনার সৃষ্টি করেছে। প্রথমটির মধ্যে দ্বিতীয়টি উহ্য আর দ্বিতীয়টির সাথে প্রথমটি অনুমিত। …নামধারী মুসলমানেরাই আজ ইসলামের ঘোর শত্রূ।  

বিস্তারিত পড়তে ক্লিক করুন- কাকে কাকের মাংস খেলে শিয়াল-শকুনের আর দোষ কী!