ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

যেখানে আইন নেই, সেখানে স্বাধীনতা নেই(জন লক) আজ আমদের দেশে নির্দিষ্ট নিজেস্ব আইন রয়েছে কিন্তু স্বাধীনতা কি রয়েছে? স্বাধীনতা রয়েছে সেই নোংরা রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত বাক্তিবর্গের তাই তারা আজ(৪০ বছর ধরে) নিরীহ সাধারন মানুষকে হত্যা করে তাদের উদ্দেশ্য পূরণ করছে।

কি হচ্ছে আজ দেশে এটা কেই কি রাজনীতি বলা হয় যেখানে রাজনীতির নামে নিরীহ সাধারন মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে? এই নোংরা রাজনীতিতে সম্পৃক্ত দল ও বাক্তিবর্গের সংঘর্ষে একজন রিকশা চালক একজন দিন মজুরির মৃত্যু হল তার নিয়ে কে প্রতিবাদ করবে বাকি তিনজন কে নিয়ে হয়তো সকলে খেলাই মাতবে কেউ বলবে আমার লোক আবার কেউ বলবে আমার লোক কিন্তু সেই রিকশা চালকের কথা কেউ বলবে না।

প্রত্যেক দিন সড়ক দুর্ঘটনাই অনেকে প্রান হারাচ্ছে তারা সবাই হয়তো এক্সিডেন্ট বলে বাস্তবকে মেনে নিচ্ছে । যেখানে হয় তো কতিপয় লোক বা সংস্থা এর গাফলতির কারনে হয়ে থাকে। কিন্তু এই নোংরা রাজনীতির কারনে যার মৃত্যু হবে তাদের পরিবার এই সত্যকে কিভাবে মানবে।আর যেখানে জড়িত বা গাফলতি কয়েকজনের নয় সম্পূর্ণ সিস্টেমের।

আমি কোন নির্দিষ্ট দল কে বলছি না আমি সকল দল কে বলছি যারা ক্ষমতাই আছেন এবং যারা নেই সকল কে। রাজনীতি তো সকল দেশেই আছে কিন্তু এই রাজনীতির কারনে মানুষের মৃত্যু তো সকল দেশে দেখা যাই না।

প্লেটো বলেছিলেন “শাসক যদি হয় ন্যায়বান তাহলে আইন অনাবশ্যক, আর শাসক যদি হয় দুর্নীতি পরায়ণ তাহলে আইন নিরর্থক।”

আজ প্রত্যেক ক্ষমতা রাজনীতির হাতেই রয়েছে বলেই আজ দুর্নীতির ছড়াছড়ি দেখা যাই।

“ক্ষমতা মানুষকে নীতিগ্রস্থ করে, আর চরম ক্ষমতা চরমভাবে মানুষকে দুর্নীতিগ্রস্থ করে।” – (বা্র্ট্রান্ড রাসেল)

একটা কথা দিয়ে শেষ করবো আলবার্ট আইনস্টাইন বলেছিলেন-
এই পৃথিবী কখনো খারাপ মানুষদের জন্য ধ্বংস হবে না, যারা খারাপ মানুষদের খারাপ কর্ম দেখেও কিছু করে না তাদের জন্যই ধ্বংস হবে।