ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

হ্যা, আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী তেমনই অপরাধে অপরাধী যেমনি তিনি বাংলা ভাষী কোটি কোটি তৌহিদী জনতাকে সুমিষ্ট কন্ঠে ডেকেছেন আল্লাহর পথে, সত্যের পথে, ঈমানের পথে, কল্যাণের পথে। এমন বাংলাভাষী মুসলিম কে আছেন যিনি সাঈদীর সুমধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে চোখের জলে বুক ভাসিয়ে দেয় নি? এমন ক’জন মা আছেন যিনি তার নামাজে আল্লামা সাঈদীর জন্য প্রাণখুলে দোয়া করেণ নি? মনে কি নেই সে কথা, যে নারী শুধু আল্লামা সাঈদীকে বিজয়ী করার জন্যই ছুটে এসেছিলেন নির্বাচনী কেন্দ্রে, সেখানেই ভূমিষ্ট হয়েছিল তার আদরের সন্তান? তার তো থাকার কথা ছিল মাতৃসদনের আতুর ঘরে। তবুও হুজুর নির্বাচনে দাড়িয়েছেন, মাত্র একটি ভোটের ব্যবধানে যদি তিনি হেরে যান বাতিলের সাথে, তবে কি জবাব দেবেন নব জাতকের কাছে? হ্যা, সাঈদী অপরাধ করেছেন, দেশের কোটি কোটি নারী পুরুষের হৃদয় জয় করেছেন, আর ভালোবাসার চেয়ে বড় অপরাধ আর কি হতে পারে?

হ্যা, আল্লামা সাঈদী তেমনই অপরাধে অপরাধী যেমনি তিনি বাংলা ভাষী কোটি কোটি তৌহিদী জনতাকে সুমিষ্ট কন্ঠে ডেকেছেন আল্লাহর পথে, সত্যের পথে, ঈমানের পথে, কল্যাণের পথে।

এ মহা অপরাধীর দিনের পর দিন রিমান্ড চলেছে, ২২টি দিন গুণেছিলাম, আজ আর গুণে কি হবে, হয়তো জীবনের শেষ পর্যন্ত রিমান্ডেই কেঁটে যাবে তার দিন। ডায়াবেটিসের রোগী তিনি, বুকে বসানো দু‘টি রিঙ । অন্যের সাহায্যে যাকে চলাফেরা করতে হয়, একাকী হাজতখানার অস্বাস্থ্যকর নোংরা ফ্লোরে শুয়ে শুয়ে দিন কাটছে তার। ইতোমধ্যে দু‘টো হাঁটুই ফুলে গেছে, ভেঙ্গে গেছে শরীর। দিন রাত থমকে গেছে তার, সকালে সূর্যের আলোতে পবিত্র কুরআনের তাফসীর দেখার সুযোগটুকু নেই মুফাসসিরে কুরআনের। প্রচন্ড গরমেও ফ্যান নেই, নিয়মিত ঘুম নেই, স্বাস্থ্যকর খাবার নেই, অযু গোছল বা প্রাকৃতিক প্রয়োজন পূরণে অসুস্থ্য সাঈদীর কোন সাহায্যকারী নেই। মশা আর পোকা মাকড়ের কামড়ে অতিষ্ঠ জীবন। এ নির্যাতনের যেন শুরু আছে, শেষ নেই, বর্বরতার কোন সীমা নেই। এ ব্যাথার যেন শেষ নাই।