ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

বাংলাদেশের সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছেন৷ আইনমন্ত্রী বলেছেন, জামায়াতকে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের৷ কমিশন ইতিমধ্যেই জামায়াতকে নোটিশ দিয়েছে৷

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জামায়াতের সহিংসতায় সারা দেশে তাদের বিরুদ্ধে সাড়ে তিনশ’ মামলা হয়েছে৷ সোমবার নারায়ণগঞ্জের সহিংসতার ঘটনায় আটক করা হয়েছে জামায়াতের ৭০ নেতাকর্মীকে৷ আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, সারা দেশে এ পর্যন্ত আটক করা হয়েছে জামায়াতের প্রায় আড়াই হাজার নেতাকর্মীকে৷ তারপরও জামায়াতের আক্রমণের আতঙ্কে আছে পুলিশ প্রশাসন৷ ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র উপ-পুলিশ কমিশনার মনিরুল ইসলাম ডয়চে ভেলেকে জানান, বিলম্বিত বিচারের কারণে তারা এখন আইনকেও ভয় পায় না৷ তারা এখন এতটাই বেপরোয়া৷

এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশে জামায়াতের রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছেন সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা৷ তারা এক গোল টেবিল বেঠকে বলেন যে, দেশের প্রচলিত আইনেই জামায়াতের রাজনীতি নিষিদ্ধ করা সম্ভব৷

তবে আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ বলেছেন, সরকার নয় জামায়াতকে নিষিদ্ধ করার ক্ষমতা আছে নির্বাচন কমিশনের৷ জামায়াতের গঠনতন্ত্র বাংলাদেশের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক, তাই নির্বাচন কমিশন তাদের নোটিশ দিয়েছে৷ তারা তাদের গঠনতন্ত্র পরিবর্তন না করলে তাদের নিবন্ধন বাতিল করা হবে৷