ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

আমি মনে করি ধর্মীয় ও সামাজিক মূল্যবোধ আর নৈতিকতাই পারে ইভ টিজ রোধ করতে। এখন বলবেন এই কাজগুলো যারা করে তাদের কাছে এটা বলে কোন কাজ নেই।
হ্যাঁ, আমি জানি কাজ হবে না। এই মূল্যবোধ গুলো পরিবার থেকেই ছোটকালে শিখানো উচিৎ ছিল। বাবা- মা যদি নিজের সন্তানকে ছোট থেকেই শিখিয়ে দেন- এটা করা উচিৎ, এটা উচিৎ না; তবেই একটা শিশু যখন বড় হবে সে ইভ টিজ করবেনা অথবা অশালীন পোষাক পড়বে না। আমাদের সমাজ নিয়ে চলতে হবে। সমাজ-দেশ যা করতে বৈধতা দিয়েছে আমরা সেটাই করবো। সমাজের চোখে যে পোষাক অশালীন সে পোষাক কোনভাবেই পড়া উচিৎ নয়। তেমনি মজা করেও টিজ করা উচিৎ নয়।

“সে অশালীন পোষাক পড়েছে দেখে আমিও টিজ করবো। এতে আমার কী দোষ।” – এই বক্তব্য দেয়া আমাদের উচিৎ নয়। সে অধম, তাই বলে আমি উত্তম হব না?

অবশ্যই আমরা উত্তম হবো। নিজ নিজ অবস্থান থেকে উত্তম হবো।