ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

বিএনপি-র সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক এম পি, এম ইলিয়াস আলীর গুমের ঘটনার পর সারাদেশে হরতাল হয়েছে- মানুষ মরেছে। কিন্তু ইলিয়াস আলীকে পাওয়া যায়নি। কোন সভ্য- স্বাধীন দেশে মানুষ গুম- কোন ভাবেই কাম্য নয়। এর দায় সরকারের উপর বর্তায়। সরকারের দায়িত্ব হচ্ছে ইলিয়াস আলীকে খুঁজে বের করা। এটা দেশের সব মানুষের-ই একমাত্র চাওয়া। কিন্তু এ ঘটনা নিয়ে তিন দিনের টানা হরতালের পর- বিএনপি-র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেনঃ

‘ইলিয়াস আলীকে সরকার ফেরত না দিলে রবিবার থেকে যে আন্দোলন শুরু হবে তাতে সারা দেশে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলবে। সে আগুন সরকার নেভাতে পারবে না ‘- খবর কালের কণ্ঠ।

এতে সাধারণ নাগরিকের মনে আতংক ছড়াবে না? এ দেশটা কি শুধুই আপনাদের? এদেশটা কি শুধুই সরকারের? সাধারণ মানুষের কোন অধিকার নেই? একই খবরে তিনি আরো বলেনঃ “মানুষ এখন সরকারের প্রতি আরো বেশি ক্ষুব্ধ হয়েছে। তারা দেশের পক্ষে অবস্থান নিতে শুরু করেছে”।

আমার প্রশ্ন- আপনার আগের বক্তব্য কি দেশের কল্যাণের জন্য? এ কথা বলার পরে কি মানুষ বলবে- আপনি, আপনারা; রাজনীতিবিদরা দেশের কল্যাণের জন্য রাজনীতি করেন?

একই পত্রিকার খবরঃ

“যতক্ষণ পর্যন্ত ইলিয়াস আলীকে না পাওয়া যাবে ততক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। প্রয়োজনে দেশকে অচল করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া।”

আপনাদের কি দেশ অচল করার জন্য মানুষ সমর্থন করে?

ইলিয়াস আলীকে খুঁজে বের করার আন্দোলনে বিকল্প কোন ব্যবস্থা নেই? সরকারের সাথে কি আলোচনা করা যায়না? আপনাদের কথা শুনে মনে হয় আপনারা শুধু অচল করতেই জানেন- সচল করতে জানেন না। জেনে রাখবেন দেশটা কোন দলের বা কারো একার সম্পত্তি নয়! দেশটা সব মানুষের! দেশ অচল করার জন্য- মানুষ গুম করার জন্য; দেশের সাধারণ মানুষ- ইতিহাস আপনাদের ক্ষমা করবে না।