ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বিদ্যুতের ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর জন্য চাপ প্রয়োগ করছে । আজ আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রতিনিধি এতেরি কিনত্রেদজে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সাংবাদিকদের বলেন, সামাজিক ও বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে বরাদ্দ বাড়াতে সরকারকে ভর্তুকি কমাতে হবে । এজন্য ধাপে ধাপে জ্বালানি ও বিদ্যুতের মূল্য সমন্বয় করতে হবে । সরকার কিছুদিন আগে জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে এবং সিএনজি ও বিদ্যুতের দামও বাড়ানোর প্রক্রিয়াধীন । এতেরি কিনত্রেদজে মনে করেন ভারত ও বাংলাদেশে জ্বালানি দামের পার্থক্য রয়েছে যার কারনে বাংলাদেশ হতে জ্বালানি তেল পাচার হচ্ছে । তিনি আরও বলেন, বর্তমানের বাজেটে ভর্তুকির পরিমাণ ১ হাজার ৯১০ কোটি টাকার কিন্তু তা ৩১ হাজার ৫০০ কোটিতে পৌঁছাবে । বর্তমানে ঋণের পরিমাণ বাড়ছে এবং এতে ব্যাংকিং ব্যবস্থার ওপর চাপ পড়বে এছাড়া কিছু ব্যাংক পুঁজিবাজারে অতিমাত্রায় বিনিয়োগ করেছে যা বাজারে সঙ্কট সৃষ্টি করবে । তিনি বলেন, ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্য দ্রুত গতিতে কমছে। জানুয়ারিতে যেখানে প্রতি ডলারের মান ৭১ টাকা ছিলো, সেখানে নভেম্বরে তা ৭৬ দশমিক ৫ টাকায় পৌঁছেছে ।