ক্যাটেগরিঃ ফিচার পোস্ট আর্কাইভ, রাজনীতি

 
???????????????????????????????????

আমি সচরাচর আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে থাকি। আমার অনেক আওয়ামী বন্ধুরা এ কারনে আমাকে জামাতের সাথেও বসিয়ে দেয়। আমি আরো ক্ষিপ্ত হই, এবং ওদের সাথে তর্ক করি আওয়ামী লীগের ক্রেডিবিলিটি নিয়ে। কিন্তু আজ আমি সত্যিই ক্ষিপ্ত, ক্ষুব্ধ। পেট্রোল বোমা মেরে আজো ৭ জনকে খুন করা হয়েছে কুমিল্লায়। একজন ভ্যান চালক মারা গেছেন লক্ষ্মীপুরে। কী বলা যায় এই নির্বিচারে মানুষ হত্যাকে? সরকার আপনার ক্ষতি করেছে; আপনাকে জনসভা করতে দেয়নি; আপনার বিদ্যুৎ লাইন কেটে দিয়েছে; আপনাকে ক্ষমতায় আসতে দেয়নি গত নির্বাচনে। আরো অনেক কিছু করেছে এই সরকার। এটা কি আমাদের দোষ? আপনি সরকারকে মারুন; আমাদের মারছেন কেন? আমি বা আমরা কেউইতো সরকারকে ওইসব বুদ্ধি দেইনি; তবে কেন মারছেন আমাদের?

আপনার আমাকে বোঝাতে হবে কেন আমি পুড়বো? প্রতিদিন আপনার লোকজন আমাকে বার-বি-কিউ করবে, আর আপনি কিছুই বলবেননা তাতো হয়না। ওদের গুলি করতে চাইলে আপনি বাধা দেবেন, অথচ নাশকতার আয়োজনে নিজেও শামিল হবেন— এ কেমন রাজনীতি আপনার!!! চিন্তা করে দেখুনতো কেন ২০১৪ এর ৫ জানুয়ারীতে আওয়ামী লীগের এই ধরনের একটা বাজে নির্বাচনের পরও মানুষ আপনার ডাকে সাড়া দেয়নি? আমি এখানে কিছু সংখ্যা বলবো কেন এটি আপনার চাওয়ামত ঘটেনি; কেন আমরা ক্রমাগত পোড়ার পরও আপনার ডাকে সাড়া দিচ্ছিনা। এভাবেই আজ আমার ব্যক্তিগত প্রতিবাদ জানাব; জানাব আমার অসহায়ত্ব কোথায় গেছে তা। কীইবা করার আছে আর আমার। সুবিধাবাদী মধ্যবিত্ত আর কিছু পারেনা যে।

ক্রমাগত আমাদের শেষ করছেন কী আশায়? ভেবেছেন আমরা এসবে ভয় পেয়ে আপনাকে ক্ষমতায় নিয়ে আসবো? কেন আনবো আপনাকে ক্ষমতায়? গোটা পাঁচেক কারন দেখাননা যেখানে আওয়ামী লীগের চেয়ে আপনার সরকার ভালো ছিল। আওয়ামী লীগ ভালো নয়, কিন্তু আপনি কি তাদের চেয়ে ভালো? কিভাবে? দুর্নীতির কথা বলছেন? দেখুনতো সংখ্যাগুলো। আপনার সময় বাংলাদেশের স্কোর কত ছিল? ২০০২ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত দুর্নীতির পরীক্ষায় ১০০ তে আপনারা পেয়েছিলেন যথাক্রমে ১২, ১৩, ১৫, ১৭, এবং ২০। আর এই সরকারের সময় ২০১০ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত এই স্কোরগুলো হচ্ছে যথাক্রমে ২৪, ২৭, ২৬, ২৭, এবং ২৫। আপনি বলতে পারেন যে, সরকার এখনো পাশ নম্বর ৩৩ পায়নি, কিন্তু আপনি বলতে পারেননা যে, এই সরকার আপনার চেয়ে বেশী দুর্নীতিবাজ। পারেন কি? নম্বর গুলোতো আওয়ামী আলারা বানায়নি; ভারতও এখানে সাহায্য করেনি; তা হলে? আওয়ামী আলারা এই পরীক্ষকদের বরং কাছে পেলে এক হাত নিয়ে নিত। কী দাঁড়াচ্ছে পুরো ব্যাপারটা?

আসুন এবার একটু অন্য কথা বলি। সারা পৃথিবীতে এখন এইচডিআই নামের একটি সূচক ব্যবহার করা হয় একটি দেশের সরকারের পারফর্মেন্স বোঝানোর জন্য। বাংলাদেশ বর্তমানে খুব ভালো করছে তা নয়, তবে আপনার সময়ের চেয়ে খারাপ করছেনা তা বলা যায়। শুনবেন একটু? শুনুন তাহলে। ২০০৬ এ আপনার সময় বাংলাদেশ এর র‍্যাঙ্ক ছিল ১৪৬। অন্যদিকে আওয়ামী আমলে ২০১৩ তে এটি ছিল ১৪২। আপনার আমলের চেয়ে খুব খারাপ? আপনি শুরু করেছিলেন ভালো, কিন্তু ক্রমাগত নেমে গেছেন নীচের দিকে। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ শুরু করেছিল খারাপ, কিন্তু পরের বছরেই অনেকটা উঠে দাঁড়িয়েছিল, অথচ আবার হোঁচট খেয়েছিল ২০১২ তে আপনার শেষ বছরের মত, কিন্তু আবার চার ধাপ এগিয়েছিল ২০১৩ তে। আপনার চেয়ে খুব ভালো না হলেও কোন অবস্থাতেই খারাপ নয়। তাহলে আপনাকে আমি ক্ষমতায় আনবো কেন? এই সংখ্যাগুলো মোটেই ভালো অবস্থার কথা বলেনা, কিন্তু আপনার পক্ষেও যে যায়না, ম্যাডাম?

আরেকটি খুব দরকারি সূচকের কথা বলি। এটি আপনারা প্রায়ই বলেন। সেটি হচ্ছে ব্যর্থ রাষ্ট্রের সূচক। এটি ২০০৫ সালে প্রথম আসে। এর স্কোরগুলো তৈরী করা হয় ১২ টি ইনডিকেটর নিয়ে যার মধ্যে মানবাধিকার থেকে আরম্ভ করে অর্থনৈতিক অবনতিসহ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সবই আছে। প্রতিটি সূচক ১০ পয়েন্ট নিয়ে; মোট ১২০ পয়েন্ট। যত বেশী পয়েন্ট পাবেন ততবেশী আপনি ব্যর্থ। দেখা যাক আপনি কত ভালো ছিলেন আর আওয়ামী বাকশালীরা কত খারাপ। ২০০৫ এবং ২০০৬ এ আপনার স্কোর ছিল ৯৪ এবং ৯৬। অর্থাৎ আপনি ২০০৫ এর চেয়ে ২০০৬ এ রাষ্ট্রকে আরো বেশী ব্যর্থ করেছেন। আপনার র‍্যাংক ছিল যথাক্রমে ১৭ এবং ১৯। দেখুনতো আওয়ামী আমলে কেমন গেছে আমাদের। ২০০৯ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের স্কোর হচ্ছে যথাক্রমে ৯৮, ৯৬, ৯৫, ৯২, ৯৩, এবং ৯৩। র‍্যাঙ্ক ছিল যথাক্রমে ১৯, ২৪, ২৫, ২৯, ২৯, এবং ২৯। আওয়ামী লীগাররা খারাপ ছাত্র এই পরীক্ষায়, কিন্তু আপনার চেয়ে খারাপতো নয়, বরং অনেক ভালো। অন্তত দশ ধাপ বেশী ভালো র‍্যাঙ্ক এর হিসাবে। তবে? কেন আনবো আপনাকে আমি ক্ষমতায়? আমাকে আরো বেশী ব্যর্থ করার জন্য?

মানবাধিকার হরণের বিষয়ে একটু শুনবেন? ওপরের সূচকে ২০০৫ এবং ২০০৬ এ দশের মধ্যে আপনার স্কোর ছিল ৮.৫ এবং ৭.৮। আওয়ামী লীগের স্কোর ২০১২ এবং ২০১৩ হচ্ছে ৬.৮ এবং ৭.৩ । অর্থাৎ এরা খারাপ করছে ঠিকই, কিন্তু অই পরিমাণে খারাপ করছেনা আপনার তুলনায় বা যতটা আপনারা বলছেন। আরেকটি খুব দরকারি বিষয় হচ্ছে রাষ্ট্রের লেজিটিমেসির প্রশ্নটি। আপনি ২০০৫ এবং ২০০৬ এ স্কোর করেছিলেন যথাক্রমে ৯.৫ এবং ৯। অর্থাৎ আপনি “এ বা এ+” পেয়েছিলেন এই বিষয়ে। অন্যদিকে ২০০১২ এবং ২০১৩ তে আওয়ামী-বাকশালীদের স্কোরগুলো হচ্ছে যথাক্রমে ৮.২ এবং ৮.৩। এরা কিছুটা বি বা বি- পেয়েছে। তুলনায় এরা আপনার চেয়ে খারাপ ছাত্র!!! কী বলেন? কিন্তু এই ক্ষেত্রে আমরা খারাপ ছাত্রকেই ক্ষমতায় রাখবো, ভালো ছাত্রকে নয়। আপনাকে ক্ষমতায় আনার জন্য আমি কেন পূড়বো তাহলে? আমার জীবন এত সস্তা?

অনেক সংখ্যা বললাম। আমি নিজেই বিরক্ত হয়ে যাচ্ছি। তবুও থামতে পারছিনা, কারন আমরা পুড়বো আর আপনি এবং আপনারা আরামে বিরিয়ানী খাবেন তা হয়না।

আপনার এবং আপনাদের প্রিয় বিশ্ব ব্যাংক কী বলে, ম্যাডাম? দেখবেন একবার? আসুন আমিই দেখাই। ২০১২ তে বাংলাদেশের পার ক্যাপিটা পারচেসিং পাওয়ার প্যরিটি (এটি দিয়ে ক্রয়ক্ষমতা বোঝা যায় কিছুটা) ছিল ২০৩০ ডলার। আপনার সময় কত ছিল এইটি? আপনার সময় ২০০৫ সালে দরিদ্র জনসংখ্যা ছিল ৪০% অথচ ২০১০ সালে এটি নেমে আসে ৩১.৫% এ। আরেকটি শুনুন। দৈনিক ১.২৫ ডলার বা এর নীচে আয় করে এমন জনসংখ্যা ২০০৫ এ ছিল ৫১%, আর ২০১৩ তে এটি নেমে এসেছে ৪৩% এ। খুব ইম্প্রেসিভ নয়। কিন্তু আপনার চেয়েতো নম্বর কম পায়নি, কী বলেন? এরকম আরো সব সংখ্যা দেয়া যাবে যা দিয়ে আপনাকে আওয়ামী লীগের চেয়ে ভালো বলতে পারবো না।

আয়ের কথা শুনবেন? ওই বিশ্বব্যাঙ্কের কথাই বলি। মাথাপিছু গ্রস জাতীয় আয় আপনার যাওয়ার সময় ছিল ৫১০ ডলার; আর ২০১৩ তে এটি ২০১০ ডলার। প্রায় দ্বিগুন!! আর জিএনাই পার ক্যাপিটা প্যারিটি কেমন দেখায় বিশ্ব ব্যাঙ্ক? আপনার যাওয়ার সময় এটি ছিল ১৯৮০ ডলার; এটি ২০১৩ সালে দাঁড়ায় ৩১৯০ ডলারে। কী কারনে আপনার জন্য আমি পুড়বো, ম্যাডাম?

এতক্ষন যা বলেছি তা আপনাকে বোঝানোর জন্য নয়। আমাদের অসহায়তা বোঝানোর জন্য। আমরা এগুলো জানি, কিন্তু আমাদের তাও পুড়তে হবে। কারন, আপনাকে ক্ষমতায় যেতে হবে আমাদের পোড়া মাংসের ওপর দিয়ে। এ আগুন নেভাবেন কবে? পোড়া মানুষ আপনাকে মালা দেয়ার জন্য থাকবে না যে!!!