ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

৮ই এপ্রিল সাংবাদিক নেতারা সাংবাদিক দম্পতি হত্যার প্রতিবাদে যে আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন তা ছিল ন্যায় বিচারের স্বার্থে। তাই ব্লগাররা এই আন্দোলনের প্রতি নীতিগতভাবে সমর্থন দেয় এবং সংহতি প্রকাশ করে আন্দোলনে যোগ দেয়ার কথা ঘোষণা করে। সেভাবেই প্রস্তুত হচ্ছিল ব্লগাররা। কিন্তু সাংবাদিক নেতারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর চা-পানের দাওয়াতে আশ্বাসে পেয়ে এ আন্দোলন স্থগিত করে দেয়। তাই বলে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ থেমে যায়নি। আমরা প্রতিবাদ করেছিলাম। একটি প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল সফল করার জন্য সেখানে উপস্থিত সম্মানিত সকল ব্লগার, সাংবাদিক, ফটো সাংবাদিক, ভিডিও সাংবাদিক সকলকে ধন্যবাদ জানাই।

বেলা ঠিক মধ্য দুপুরের ত্রিশ মিনিট পর আমাদের এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি শুরু হয়। ব্লগাররা নানা ধরনের প্ল্যাকার্ড ও কালো ব্যানার বহন করেন। ব্যানারে সাগর-রুনি’র হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করা হয়। প্ল্যাকার্ডগুলোতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কার্যাবলী নিয়ে নানা রকম যৌক্তিক সমালোচনা ও প্রশ্ন রাখা হয়। প্ল্যাকার্ড গুলোতে ব্লগাররা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির সমালোচনাও করেন।
৮ই এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ব্লগার আইরিন সুলতানা, বিডিনিউজ২৪ডটকম’এর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক আবু সুফিয়ান, জাগো বাহে জাগো, মঞ্জুর মোর্শেদ, সোহেল মাহমুদ, কৌশিক আহমেদ, নাহুয়াল মিথ, রাফে সাদনান আদেল সহ অন্যান্য ব্লগাররা সেখানে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক দম্পতি হত্যার বিচার দাবিতে বক্তব্য রাখেন। বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মিথ্যে সান্ত্বনা, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মিথ্যাচার ও সাংবাদিক হত্যাকে চাপা দেওয়ার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ করা হয়। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সমালোচনা করলে সাগর-রুনি’র হত্যাকারীদের বিচারের দাবিটি সকলের বক্তব্যেই প্রাধান্য পায়। এ সময় RAB-৩ এর একটি গাড়িকে কড়া নজরদারিতে টহল দিতে দেখা যায়।

বক্তব্য শেষে আমাদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়। মিছিলটি রাজু ভাস্কর্য থেকে শুরু হয়ে ছবির হাট পর্যন্ত চলে। এসময় এলাকাটি স্লোগানে স্লোগানে ভরে উঠে। স্লোগানগুলো ছিল “আমাদের সংগ্রাম – চলবেই চলবে” “সাগর-রুনি’র রক্ত – বৃথা যেতে দেব না” “জ্বাল জ্বাল – আগুন জ্বাল” “আমার ভাইয়ের রক্ত – বৃথা যেতে দেব না” “আমার বোনের রক্ত – বৃথা যেতে দেব না” “আমার ভাই মরল কেন – প্রশাসন জবাব চাই” “আমার বোন মরল কেন – প্রশাসন জবাব চাই” “চলছে লড়াই চলবে – ব্লগাররা লড়বে

ছবির হাটে এসে আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি শেষ হয়। এখানে আমাদের পরবর্তী কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা হয়।

আরিফ হোসেন সাঈদ
৮ এপ্রিল ২০১২

রিলেটেড পোষ্টগুলোঃ
আইরিন সুলতানা,
আবু সুফিয়ান
আবু সুফিয়ান
আবু সুফিয়ান,
ডয়চে ভেলে,
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
বিডিনিউজ২৪ ডটকম,
আরিফ হোসেন সাঈদ
আরিফ হোসেন সাঈদ