ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

 

জনৈক ধর্মভুতাক্রান্ত আমাকে প্রশ্ন রাখলেন…

৭.১/২ ইঞ্চি কাপড় পড়া নারী দেখে কি আপনি একটুও বিচলিত হবেন না?নাকি আপনি এগুলো দেখে অভ্যস্ত? আমেরিকায় নারী ধর্ষিত হয় বেশী, নাকি ইরানে? শালীনতার সংজ্ঞা কি? মেয়েদের কোন ধরনের পোশাক পরা উচিত? বোরখায় এলার্জি কিন্তু ৭.১/২ ইঞ্চি কাপড় পড়া নারী আপনার কাছে আকর্ষনীয়? একটু সত্য বলবেন কি?

ক্রমানূসারে উত্তর দিচ্ছি:

১. অবশ্যই বিচলিত হই। সুন্দরী নারীর সৌন্দর্য দেখে পুরুষ যদি বিমোহিত না হয়, তবে তো মনুষ্যজাতির বিলোপ ঘটবে। তবে আমার প্রতিক্রিয়া ওই ‘মোহিত’ হওয়া পর্যন্তই। আপনার মতো আমি অনৈস্লামিক ও তথাকথিত সাড়ে সাত ইঞ্চি কাপড়ের ‘অপরাধে’ বেত্রাঘাত কিংবা ধর্ষনের দায় বোধ করি না।

২. আপনি পুরনো পরিসংখ্যানের ফ্যালাসি আনলেন। আমেরিকা উন্নত ও সভ্য জনগোষ্ঠী। সেখানে কোনো নারীর অনিচ্ছায় তার গায়ে স্পর্শও অপরাধ হিসেবে গন্য এবং পুলিসের কাছে লিপিবদ্ধ হয়। সুতরাং সেখানে ধর্ষন জাতীয় অপরাধগুলির পরিসংখ্যান সঠিক ও প্রকৃত চিত্রের কাছাকাছি। অন্যদিকে ইসলামাক্রান্ত দেশগুলিতে অবস্থা মোটেও তেমন সৎ নয়। সেখানে ধর্ষনের অভিযোগ প্রমাণে নারীকে চারজন পুং হাজির করতে হয়। আপনার কি মনে হয় এমন দেশে ধর্ষণের সঠিক পরিসংখ্যান আশা করা উচিত?

৩. মেয়েদের কোন ধরনের পোশাক পড়া উচিত, সেটা নিয়ে আপনি আমি কেন এতোটা চিন্তিত, ঠিক বুঝলাম না। ওদের পোশাক ওদেরই ঠিক করতে দিন না! যদি তারা দোকানে পাওয়া পোশাক পড়ে, এবং আপনার অবদমিত ধর্মানুভূতি তাতে উত্থিত হয়, সেটা কি নারীর সমস্যা? নাকি আপনার লুজ চরিত্র একটু শাসনের দাবি রাখে?

৪. সাড়ে সাত ইঞ্চি কাপড়ে সুন্দর দেহবল্লরীর নারী অবশ্যই আকর্ষণীয়া। বিবর্তনে নারীর সৌন্দর্যের গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রয়েছে। প্রজননের মাধ্যমে বংশগতি চলমান রাখতে নারী পুরুষের পারষ্পরিক শারিরীক আকর্ষণের ভুমিকা মুখ্য।

এখনো জীবিত পুরুষের মতো আমিও তাই সুন্দরী নারী দেখলে আপনার মতোই মোহিত হই, যেকোনো পুরুষই হয়।

তবে… আমি শুধু সৌন্দর্যের তারিফ করি।

আপনি তাকে ধর্ষনের / ইভটিজিংয়ের ফন্দি করেন।

পার্থক্যটা ধরতে পারলেন?