ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

jaborhat ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার জাবরহাট কলেজের এক প্রদর্শক নানা প্রলোভন দেখিয়ে এক গৃহীনিকে অপহরণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঐ প্রদর্শকের শাস্তির দাবিতে শনিবার দুপুরে শতাধিক নারী পুরুষ কলেজের অধ্যক্ষকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছে। বিক্ষোভকারীরা জানায়, জাবরহাট কলেজের জীব বিজ্ঞান বিভাগের প্রদর্শক নুরে আলম সিদ্দিকী নানা প্রলোভনে সম্প্রতি মাটিয়ানি গ্রামের এক হিন্দু রিক্সাভ্যান চালকের স্ত্রীকে অপহরণ করে।

বিষয়টি জানা জানি হলে এ নিয়ে এলাকায় অস্থিরতা দেখা দেয়। এর বিচার দাবি করে কলেজের শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা গত ৮ অগাস্ট কলেজের অধ্যক্ষ বরাবরে আবেদন করেন। আবেদনে উল্লেখ করা হয়, নুরে আলম সিদ্দিকী একজন অসৎ চরিত্রের লোক। এর আগেও তিনি এরকম ঘটনায় টাকা জরিমানা দেন এবং জেল হাজত খাটেন। এবার এর বিচার করা না হলে কলেজে অধ্যয়নরত তাদের ছেলে মেয়েদের টিসি প্রদান করার জন্য অনুরোধ জানান। আবেদন পেয়ে কলেজের অধ্যক্ষ করিমুল হক বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ১০ অগাস্ট কলেজের শিক্ষক সুকমল বিশ্বাসকে আহবায়ক করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। তদন্ত কমিটি শনিবার অধ্যক্ষের নিকট প্রতিবেন দাখিল করেছেন। এদিকে ঘটনার বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হলেও দৃশ্যমান কোন ব্যবস্থা না হওয়ায় মাটিয়ানি সহ আশপাশের এলাকার শতাধিক নারী পুরুষ শনিবার দুপুরে কলেজে অধ্যক্ষকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। অধ্যক্ষ কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সভা ডেকে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আশ্বাস দিলে বিক্ষুব্ধরা বাড়ি ফিরে যায়।

এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি আহবায়ক সুকমল বিশ্বাস জানান, ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। এ নিয়ে প্রতিবেন দাখিল করা হয়েছে। কলেজের অধ্যক্ষ করিমুল হক জানান, তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। গভর্নিং বডির কমিটি সভা ডেকে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।