ক্যাটেগরিঃ নাগরিক সমস্যা

 

আমি সিলেট থাকি, আগে ঢাকা থাকতাম যখন আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর ছাত্র ছিলাম। ছাত্রাবস্থায় আমি একটা চাকুরী করতাম। আমার অফিস ছিলো উত্তরায়। প্রতিদিন সকাল বেলা উত্তরা যেতাম। অসহায়ের মতো শাহাবাগ মোরে তিন নম্বর বাসের জন্য অপেক্ষা বাস আসার পর বাসে উঠে আবার অসহায় কারণ বাস না ভরলে বাস ছারবে না, চেচামেচি আর অই ড্রাইভার যাস না ক্যান?

এই কথা বলে কি আর চিরা ভেজে। ঘামতে ঘামতে ২ ঘন্টা পর আজমপুর তার পর ৭ নম্বর সেক্টর অফিস, সব মিলে আরাই ঘন্টা। যথারিতি অফিস লেট। যাক ফ্যানের বাতাস খেয়ে অসিফ শেষ করে আবার আজমপুর। আজমপুর থেকে শাহাবাগ আসব বাস দেখি কিন্তু বাসের দরজা দেখি না। যাহোক কোনো মতে বাসের একটা হ্যান্ডেল ধরে শাহাবাগ আসতে ৩ ঘন্টা।

তাহলে কি দাঁড়ালো প্রতিদিন সারে পাচ ঘন্টা শুধু যাওয়া আসা। এভাবে যদি একদিনে সাড়ে পাঁচ ঘন্টা জীবন থেকে চলে যায় তাহলে বছরে কত সময় আমাদের জীবন থেকে চলে যায়, হিসাব করে আমার আমার মাথা ঘুরত। এর পর থেকে পণ করলাম আমি একতা ভালো চাকুরী পেলে ঢাকাকে গুডবাই জানাব।

মাস্টারস এর রেজাল্ট বের হল। এর মধ্যে ক্যাডেট কলেজের প্রভাষক পদের সারকুলার দেখলাম। আবেদন করলাম আমার চাকুরীটা হয়ে গেল। আমি ঢাকার বাইরে মানে সিলেট চলে আসলাম। কলেজের কোয়াটার পেলাম এখন আমার অফিস যেতে সব মিলে ১০ মিনিট লাগে। আমার পাঁচ ঘন্টা বিশ মিনিট আবার ফিরে আসতে লাগলো।

প্রিয় বাংলাদেশের ভাইরা বাংলাদেশকে ভালোবাসলে ঢাকার মায়া ত্যাগ করুন। ঢাকা বাঁচবে, বাংলাদেশ বাঁচবে আপনি ফিরে পাবেন সময় অফুন্ত সময়।