ক্যাটেগরিঃ দিবস প্রসঙ্গ

 

আমার মা, কোন সেলিব্রেটি মা নয়।
আমার মা, পৃথিবীর সেরা মা’ও নয়!

আমার মা, আর আট-দশটা মা’য়ের মতোই সাধারন এক মা। যার সকাল হয় হেসেলে আগুন জ্বালিয়ে, দিন শেষে ঘুমের প্রস্তুতি নেয় বাসন মাজতে মাজতে।
আমার মা, আর আট-দশটা মা’য়ের মতোই সাধারন এক মা। যে দেশ সেরা রাধুনী নয়! তবে সন্তানের রসনা বিবেচনায় সে পৃথিবীর সেরা রাধুনী…
আমার মা, আর আট-দশটা মা’য়ের মতোই সাধারন এক মা। যে কোন গায়িকা নয়! তবে সন্তানের ছোটবেলার ঘুমরাজ্যে সে সেরা ঘুমপাড়ানী গায়িকা…
আমার মা, আর আট-দশটা মা’য়ের মতোই সাধারন এক মা। যে কোন অভিনেত্রী নয়! তবে সাংসারিক চাহিদা-যোগানের গরমিলে, নিজের অংশ বিসর্জন দিয়েও যে প্রাপ্তির হাসি! অষ্কার পাবার জন্য যা যথেষ্ট..
আমার মা, আর আট-দশটা মা’য়ের মতোই সাধারন এক মা। সাধারন এক জন্মদাত্রী, লালনকর্তী, পালনকর্তী এবং প্রয়োজনের নিরব যোগানদাত্রী…

আমার মা বিশেষ কিছু নয়! বরং মা মাত্রই বিশেষায়িত। সেটা আমার হোক কিংবা অন্যের।
সন্তান সুলভ পক্ষপাতে আমার মাকে পৃথিবীর সেরা মা বানিয়ে দেয়াটা সহজ এবং যৌক্তিক। এতটুকু যোগ্যতা তিনি ধারন করেন। কিন্তু এতে শুধু ব্যাক্তি মা’কেই উচিয়ে ধরা হবে! নিচু করা হবে মা নামটিকে। কারন মা মাত্রই সেরা, সেটা আমার মা’ই হোক কিংবা অন্যের। মা মাত্রই সেরা, সেটা গর্ভে ধারন করেই হোক কিংবা অন্য….
মা মাত্রই সেরা, সেটা হোক জন্মদাত্রী।
হোক দুগ্ধদাত্রী(দুধমাতা)
পুত্র কিংবা কন্যাদাত্রী(শাশুরী)
বিদ্যাদাত্রী(শিক্ষিকা)
মাতৃ অথবা কন্যাসম(মা অথবা কন্যার বয়সি)
অন্যদাত্রী(যিনি খাদ্য দেন)
স্নেহদাত্রী(যিনি স্নেহ-ভালোবাসা দেন)
স্থানদাত্রী(জননী-জন্মভূমি)……..

আসলে মা শুধু সন্তানকে গর্ভেই ধারন করেন না, বরং সন্তানের চোখে মাতৃত্বকে জগৎ-এর মাঝে ছড়িয়ে দেন। যখন মা শুধু ব্যক্তি থাকে না! বরং জগৎটাই মাতৃরুপ ধারন করে। মা তখনই অসাধারন হয়ে ওঠে…

@আমার অতি সাধারন মা,
আমার জগৎ মাঝে তোমারি প্রতিচ্ছবি, আর এটাই তোমার অসাধারনত্ব…