ক্যাটেগরিঃ দিনলিপি

 

কিছুক্ষন আগেই আমি আমার মানিব্যাগ হারিয়েছি!!! এ ঘটনায় শোকাহত জাতির প্রতিনিধি হিসাবে হয়তো কিছুক্ষণের মধ্যেই রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধীদলীয় নেত্রী শোকবার্তা পাঠাবেন বলে আশা করছি! আমি একথা ভাবতেই বেশ পুলক অনুভব করছি যে, যখন আমি বিখ্যাত হবো, তখন হয়তো আজকের দিনটিকে “বিশ্ব মানিব্যাগ হারানো দিবস” হিসাবে পালন করা হবে! যেদিনে “বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী পকেটমার দল” ও “আওয়ামী পকেটমার লীগ” আলাদা আলাদা কর্মসূচির মাধ্যমে আমাকে ও আজকের দিনটিকে স্বরণ করবে! রাস্তায় রাস্তায় স্লোগান হয়ে “জেমান ভাইয়ের মানিব্যাগ বৃথা যেতে দেবো না”। আমি হয়তো সেসময় পরপার থেকে এসব কর্মকান্ড দেখবো আর কটাক্ষের হাসি হাসবো…..!!! কারন যে মানিব্যাগের জন্য এতকিছু তার মধ্যে ছিলো আমার অবশিষ্ঠ মাসের খরচের টাকা। তারা কি কখনো বুঝবে একজন বেকার ছেলের জন্য কি পরিমান কষ্টের ছিলো সময়টা……যার কাছে বিশেষ দিবস শুধুই করুনার!!!

এই মুহূর্তে, আমি অনুভব করছি, আমাদের ভাষা শহীদ, শহীদ মুক্তিযোদ্ধারা, মওলানা ভাসানী, বঙ্গবন্ধু, জিয়া…ইনারা প্রত্যেকেই হয়তো পরপার থেকে আমাদের প্রতি কটাক্ষের হাসি হাসেন(তাদের ত্যাগকে রাজনৈতিকভাবে ভাঙ্গিয়ে খাবার জন্য)। তবে আমি জানি, তারা অমর! কারন হাসি যে আয়ু বাড়ায়। –

দুপুর ১:৩০, ১৯জুলাই’১১।