ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

১. ছোট একটা চাকুরির সুবাদে ঢাকায়। সারা বছর ছুটি পাইনা আর কোন সময় বসের কাছে ছুটি চাইওনা উদ্দেশ্য একটাই বস ঈদের সময় ছুটিতে যেন “না” না করেন। পেপার পত্রিকা আর পড়িনা পকেটে পয়সা আর হাতে সময় থাকলে নেটে একটু বসি এই।দুইজন কলিগ মসকরা করছিল,সন্তান ডেলিভারির জন্য অয়াইফকে হসপিটালে নিতে হলে ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে পড়লেই হয়েছে!কথাটা শুনে খারাপ লাগলেও কানের ডিস এন্টেনাটা সেদিকে ঘুরালাম। সারমর্ম হলো,৩০০ কোটি ডলারের পদ্মা ব্রিজ, ২০০ কোটি ডলারের ঢাকা উড়াল সেতু এবং আরো ২০০ কোটি ডলারের ঢাকা চট্টগ্রাম এবং ঢাকা ময়মনসিংহ চার লেনের রাস্তা কথাগুলো শুনলে প্রান ভরে যায়,কিন্তু যখন দেখি বাড়ী যাবো ঈদে অথচ গাড়ি চলবেনা রাস্তা খারাপ। তখন সারা বছরের কষ্টগুলো শরীরের উপর যেন একসঙ্গে ভর করে।” কী করলেন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা আমাদের জন্য!”একটা দেশের উন্নয়ন হয়েছে বলতে সাধারণ জনগন সেটাকেই বোঝে,যখন দেখে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম কমে নাগালের মধ্যে এসেছে,রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন হয়েছে,জনগনের হাতের কাছে দেয়া সেবা, ইলেকট্রিসিটির উন্নয়ন হয়েছে।এগুলো তো চাক্ষুস জনগনের নিত্যদিনের পরিসংখ্যান খাতা। এগুলোই যখন উন্নত করতে পারেননি তখন কী করলেন এতদিন!এগুলো শুনলে গায়ে ফোস্কা পড়তে পারে কিন্তু মনে রাখবেন ক্ষমতা পাকাপোক্ত করার জন্য এগুলোই সবচেয়ে বড় হাতিয়ার।চাটুকারের কথায় কান না দিয়ে এগুলোর উন্নয়নে ব্রতি হন আর কোথাও ছোটা লাগবে না।

২. ছোটতে দেখতাম এক মস্তিষ্ক বিকৃত লোক আসতো আমাদের বাসায়। গলির নিকট থেকে চীৎকার দিয়ে বলতো,”ও চাচী আমাকে মশুরের ডালের ভত্তা আর মামলেট দিয়ে ভাত দিবেন আজ দুপুরে আপনাদের এখানে খাব।”শুনলে আমার রাগ লেগে যেত,আহ মামার বাড়ির আব্দার!চাইলেই হলো!পরে একদিন জেনেছি সে এক সম্পদশালী লোকের এক মেধাবী সন্তান ম্যাট্রিক পাস করার পর পাগল হয়ে গেছে।তখন থেকে তাকে দেখলে আমার করুনা হতে লাগলো।আপনাদের কাণ্ড কারখানা দেখলে আমার আবার যেন তেমনটিই হয়।জানিনা সেই পাগল আজো বেঁচে আছে কিনা!

৩. যা হোক আরেকটি কথা,বড় চাচা বলতেন,যে লোকগুলো সারা জীবন নিজে পোলাও খেয়ে থাকে অন্যকে দেয়না,তারা মারা গেলে বড় ব্যাং হয় আর ঝিলের পাশে বসে চড়া গলায় বলে,”পোলাও পোলাও পোলাও”।আর রুটি খেয়ে খেয়ে যারা মারা যায় তারা ঘরের কোনায় থেকে বলে,”রুটি রুটি রুটি”। সুতরাং সারা বছর পোলাও বিরানি খেয়ে উঁচু গলায় উল্টা-পাল্টা উপাত্তহীন মিথ্যা বক্তব্য পরিহার করুন এবং দুবেলা দুমুঠো খেটে খাওয়া মানুষের কাতারে আসুন,কষ্টটা শেয়ার করুন অনেক কিছুই সহজ হয়ে যাবে।