ক্যাটেগরিঃ ব্যক্তিত্ব, হুমায়ূন আহমেদ স্মরণে

হুমায়ুন আহমেদ এর উপন্যাস আর নাটকগুলোতে এক ধরনের নতুনত্ব এক ধরনের আলাদা ভাব বা পাগলামি আছে। বিধাতার কি লিলা। তার মৃত্যুর মধ্যেও সেই এই নাটকিয়তা ঘটছে। যেন হুমায়ুনের মৃত্য পরবর্তী উপন্যাস এক।
১। তার মৃত্যু নিয়ে নাটকিয়তা: কেনসার এর কারনে তার মৃত্যু হয়নি । হয়েছে অচিন ভাইরাসে।
২। লাখো মানুষের ভালবাসার যন্ত্রনায় সিক্ত হুমায়ুনকে আজ দাফন করা হবে। তার দাফন নিয়েও নাটকিয়তা।
৩। টিভি মিডিয়ার এখন প্রধান খবর হুমায়ুন আহমেদ।
৪। তার হিমু চরিত্রটিও এখন জিবন্ত হয়ে শুভেচ্ছা জানাতে হাজির কফিনের পাশে। মিডিয়া কর্মিরা তাদের সাক্ষাতকার নিচ্ছে।
৫। দাফন কোথায় হবে এ নিয়ে সরকারী পর্যায়ে মধ্যস্থতা। মন্ত্রিসভায় শোকপ্রস্তাব গৃহিত।
৬। তার লাশ দাফন জটিলতায় রাখা হয়েছে বারডেমের হিমাগারে।
৭। টকশোতে টকশোতে শুধু হুমায়ুন বন্দনা। সৃতিচারন।
৮। হুজুর শ্রেনীরা বলছে সে নাস্তিক। সে প্রথম আলোতে বলেছে সবকিছু মাটি হয়ে যায় একদিন। ওপারের জগতে তার বিশ্বাস নেই। আবার তার আধাত্তিক টাইপ ভক্ত বলছেন না তিনি মরনে কথা সব সময় স্মরন করতেন। কোরআনের আয়াত উচ্চারন করে তিনি এক পার্টিতে তা প্রকাশ করেন। সেখানে শাওন গেয়েছে -মরিলে কাদিসনা আমার দায়। কাজেই সে আধাত্তিক মানুষ। আবার কেউ কেউ বলছে হুমায়ুনের ভিতরে আছে হিমু যে ঐশ্বরিক বিষয়ে বা এন্ট্রি লজিকে বিশ্বাস করে। কেউ বলছে তিনি মিসির আলি। তিনি লজিকে চলেন। কেউ বলে তিনি আসলে কনফিউজড একজন মানুষ। যখন যেটা মনে আসে সেটাই বলেন একজন খামখেয়ালী মানুষ। আরও কত মন্তব্য
৯। বিরোধীদল এর ফারুক বলেন হুমায়ুন নিয়ে রাজনীতি নয়। রাষ্ট্রিয়ভাবে শহীদ মিনারে তার শ্রদ্ধার ব্যবস্থা করতে হবে।
১০। সর্বোপরি সাথে সাথে রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রি আর বিরোধী দলীয় নেত্রীর গভীর শোক প্রকাশ।
হুমায়ুন আহমেদ কে ঘিরে বর্তমানে উল্লেখযোগ্য খবর গুলো:

নুহাশপল্লীর পথে হুমায়ূন
হুমায়ূনের দ্বিতীয় স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন এবং প্রথম স্ত্রী গুলতেকিন আহমেদের ছেলে-মেয়েদের নিয়ে লেখকের চার ভাইবোন আলাদাভাবে নুহাশপল্লীতে পৌঁছেছেন।

হুমায়ূনের অপেক্ষায় নুহাশ পল্লী
অবশেষে নুহাশ পল্লীতেই শেষ শয্যা
নাতি-নাতনীদের পক্ষে হুমায়ূনের মা, শাওন অনড়
‘নুহাশ পল্লী যেন কবরস্থান না হয়’
জীবিত থাকতে কোথায় ছিল ‘তারা’: শাওন
প্রতিমন্ত্রীকে নিয়ে দখিন হাওয়ায় জাফর ইকবাল
হুমায়ূনের দাফন নিয়ে দ্বন্দ্ব
নুহাশ পল্লীতে কবর চায় না হুমায়ূনের সন্তানরা
হুমায়ূনের দাফন মঙ্গলবার, স্থান ঠিক হয়নি
‘হুমায়ূন নুহাশ পল্লীর কথাই বলে গেছে’
স্বভূমে অন্য ভুবনের বাসিন্দা হুমায়ূন আহমেদ
‘উনার শেষ ইচ্ছা ছিল নুহাশ পল্লী’

এগুলো নাটকিয়তা। নাটক বা উপন্যাস তৈরীর উপাত্ত।
হু্মায়ুন আহমেদ বেচে থাকলে হয়তো একজন নন্দিত লেখকের মৃত্যু পরবর্তী অবস্থা নিয়ে কোন উপন্যাস বা নাটক করলে তাতে এরকম বিষয়গুলোই থাকতো বলে আমার ধারনা। সর্বদিক বিবেচনায় এই জন নন্দিত উপন্যাসিক ও নাট্যকারের মৃত্যও তার নতুন একটি উপন্যাস বা নাটক। যা সারদেশের মানুষ প্রত্যক্ষ করছে। আজ নাটকের শেষ পর্ব তাকে কবরে সমাহিত করার মধ্য দিয়ে এর ইতি হবে।

সত্য কি নাটকের মতো এভাবে হুমায়ুন এর জীবন নাটকের ইতি হয়ে যাবে? আমরা তা চাই না।
প্রতিটি ভক্তের হৃদয়ে তিনি বেচে থাকবেন এটাই প্রত্যাশা।