ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

একটি পোস্ট। আফগানিস্থানে চাচা নিখোঁজ সংক্রান্ত। ভিন দেশে ভিন মানুষের হাতে। আর আমার দেশে নিজ মানুষের হাতে নিজ সহকর্মীদের দ্বারা নিখোঁজ হয়েছেন একজন আইটি বিশেষজ্ঞ। দু্ঃখ রাখি কোথায়? কি হচ্ছে দেশে? সত্য প্রকাশ করলেই তাকে গুম হতে হবে? সরকারের মন্ত্রনালয় বা আইনশৃংখালা বাহিনি কেউ দায় নিতে চায় না কেন?

এর আগে এমনিভাবে সত্য প্রকাশ করায় এ ধরা ছেড়ে নির্মম ভাবে যেতে হয়েছে সাগর রুনিকে। সত্য বলা কি অপরাধ? অপরাধী শাস্তি পায় না। পায় অপরাধী সনাক্তকারী। এ কেমন দেশ? তবে কি এই দেশ আজ অপরাধীদের হাতে জিম্মি হয়ে গেছে? অপরাধীরাই কি শুধু এদেশে রাজত্ব করবে? নিরপরাধরা কি কেবল গুম হত্যার স্বীকার হবে কিংবা কারাগারে ধুকে ধুকে মরবে? কে দিবে জবাব?

অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে একজন গভর্নর পদ ছাড়লেন আরেকজন গভর্নর হলেন। সোনালী ব্যাংককে ডুবিয়ে এখন বাংলাদেশ ব্যাংক ডুবাতে এসেছেন। জাতিকে আরো ভালোভাবে কাঁদাতে। আরো বড় কেলেঙ্কারী ঘটাতে। কি আজব দেশ!

সোনালী ব্যাংক কেলেংকারী নিয়ে এতো তোলপার হলে এর পরেও তার চেয়ারম্যানকে পদোন্নতি দিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর করা হলো। অপরাধীরাই জয়ী। এইটা কি তবে এদেশের থিম হয়ে গেল? পুরাটাই হবু চন্দ্র রাজার দেশের অবস্থা। কি আছে দেশের ভাগ্যে? আল্লাহই ভাল জানেন। হে আল্লাহ আমাদের উদ্ধার করো এই উল্টা-পাল্টা ভজঘট অবস্থা থেকে।