ক্যাটেগরিঃ দিনলিপি

বাবা মারা যাবার ৫ কি ৬ দিন আগেকার ঘটনা। ফেনী থেকে আপা আসবে। বাবা তখন খুবই অসুস্থ। খাটে শোয়া। আপা আসার খবর শুনে বহু কষ্টে একটু উঠার চেষ্টা করলেন। মা তাকে ধরে বসালেন। অস্পষ্ট ভাবে বহু কষ্টে মাকে বললেন স্বপনেরে, টা কা দা ও। বা জা র ক ই রা আ নুক। মা টাকা দিলেন। বাবা আমার হাতে টাকা দিয়ে বললেন। এ ক টা কাঁ ঠ ল আর এ ক টা ব ড় দে ই খা মু র গী আ নবি। আমি ঠিক বুঝতে পারি নাই তার কথা। বললাম বুঝি নাইতো। তখনই স্বভাব সুলভ ধমক। বে-যাক্কল। একটা মুরগী একটা কাঁঠাল। বহু কষ্ঠে স্পষ্ট করে বললেন। বাবা নেই কিন্তু তার এ শেষ গালিময বচন আমার জীবনে দোয়া হিসেবে চিরদিন থাকবে। বাবা মারা যান ২০০৯ সালের ৪ঠা আগষ্ট।

এশার নামাজ শেসে বাসায় ফিরলাম। বাবার তখন ওপারে যাবার যেন খুব তারা। সবাই সুরা ইয়াসিন পড়ছে। আমিও পবিত্র কালামে পাক নিয়ে পাসের বাড়ীর মহসীন এর সাতে সুরা ইয়াসিন পড়তে লাগলাম। বাবা চির বিদায় নিলেন । বাবার মতো হতে চাই। হতে কি পারবো? বাবার ছেলে বাবার মতো হতে পারলাম না। বড়ই আফসোস। হে আল্লাহ তার কবরের আযাব মাফ কর। তার পরকালিন জীবন শান্তিময় কর। জান্নাতের উচ্চ মাকাম জান্নাতুর ফেরদাউস দান কর। আমিন।।

বাবার সেই মুখ খানা
নিয়েছে চির বিদায়
স্মৃতিরা শুধু আছে
চারপাসে আনন্দ বেদনায়
Image may contain: 1 person , selfie and closeup

Photo-0030 nanavaier kole hilmi