ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

‘আপনার সচেতনতাই আপনার নিরাপত্তা’ স্লোগানে কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রম, সাতাইশ টঙ্গী গাজীপুরের উদ্যোগে এলাকায় নানা প্রকার অসামাজিক কার্যকলাপ, সন্ত্রাস ও মাদক প্রতিরোধে এক বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

গত  ২৬ অক্টোবর সাতাইশ ঈদগাহ রোডে  আয়োজিত অনুষ্ঠানে এলাকার নানা শ্রেণির মানুষ ও বাড়ির মালিকদের উপস্থিতিতে সভায় সন্ত্রাস, মাদক ও অসমাজিককার্যকলাপ প্রতিরোধে দৃঢ় অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন বক্তারা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নবগঠিত গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ  এমদাদুল হক এবং  ৫১ নং ওয়ার্ড গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নব নির্বাচিত  কাউন্সিলর আমজাদ হোসেন।

বক্তব্য রাখছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন টঙ্গী পশ্চিম থানা অফিসার ইনচার্জ

মাদক সমস্যাকে জাতীয় সমস্যা আখ্যায়িত করে  টঙ্গী থানার সম্মানিত অফিসার ইনচার্জ বলেন,  “সরকার এ ব্যাপারে জিরো টলারেন্সে আছেন। তাই মাদক প্রতিরোধ যে কোনো মূল্যে করতে হবে।”

এজন্য তিনি কমিউনিটি পুলিশের কার্যক্রমের প্রসংসা করে। এ কমিটিসহ উপস্থিত সকল মানুষের কাছে এ বিষয়ে পুলিশকে সহযোগিতা করার জন্য আহ্বান জানান।

“মাদক এমন ভাবে ছেয়ে গেছে যে তা স্কুলে পড়ুয়া ছেলেমেয়েদেরকে পর্যন্ত আছর করেছে। স্কুলের ছেলেমেয়েরা স্কুল ফাঁকি দিয়ে এলাকার অলিতেগলিতে বসে নেশায় বুঁদ হয়ে থাকে। এতে মদদ দেয় এলাকার কিছু মাদক ব্যবসায়ী। তারা ভেবে দেখে না তাদের সন্তানও একদিন এর আছরে পড়তে পারে। এদেরকে যেখানে পাবেন ধরিয়ে দিন। সবাই মিলে তাদের আটাকাবেন। মেট্রোপলিটন পুলিশকে খবর দিবেন। তারা আপনাদের পাশে সবসময় আছে ও থাকবে। নিজেদের আগে এ বিষয়ে সচেতন হতে হবে।”

সচেতনতাই সবাইকে মাদক থেকে নিরাপদে রাখবে বলে মনে করেন তিনি।

“এমন অনেক বাবা-মা আছেন যারা তাদের বখাটে সন্তানকে ঠিক পথে আনতে না পেরে থানায় বা সংশোধনাগার এ দিয়ে যান। তারা যদি আগে সচেতন হতেন এমনটা হত না। সন্তানদের খোঁজখবর নিতে হবে। তাদের বন্ধুবান্ধবদের চিনতে হবে। কোথায় যায়? কী করে? এগুলো জানতে হবে।”

এলাকার প্রভাবশালীদের নীরব চাঁদাবাজি নিয়ে সতর্ক করেও বক্তব্য রাখেন তিনি।

সভায় রক্তব্য রাখছেন কাউন্সিলর আমজাদ হোসেন

৫১ নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর জনাব আমজাদ হোসেন বলেন, কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রমের মাধ্যমে যে কোনো বেআইনি কাজ প্রতিরোধে তিনি সর্বদা পাশে থাকবেন।

“যেখানেই মাদক আর সন্ত্রাস সেখানেই ঐক্যবদ্ধভাবে গর্জে উঠবেন আপনারা। আপনারা সচেতন হোন, আমি আপনাদের সাথে আছি। সব ধরনের সহযোগিতা আমি করব।”

এর আগে কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রমের পক্ষ থেকে অতিথিদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন কাজীপাড়া কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রম ইউনিট থেকে সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ও উপদেষ্টা জনাব আঃ হাই আকন্দ ডিডি, এন.এস আই (প্রাক্তন), আঃ মান্নান মাষ্টার, ডিশ ব্যবসায়ী ও যুব লীগ নেতা মোস্তফা মিয়া।

কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রম সাতাইশ  যাত্রা শুরু করে ২০০৯ সালে।  কমিউনিটি পুলিশ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য নতুন করে উপদেষ্টা ও কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়।  এই নব গঠিত কমিটি অক্টোবরের শুরু থেকে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। এরই ধারাবহিকতায় কমিটি এলাকায় থানা ও কাউন্সিলরের উপস্থিতিতে এই সভার আয়োজন করে।