জনৈক নাস্তিকের নাস্তানাবুদের কাহিনী

কোন এককালে ছিল এক নাস্তিক।(এখনো আছে ভুরি ভুরি) সে বলত-‎ ক. গোটা পৃথিবীটা এমনি এমনি প্রাকৃতিক বিবর্তনে সৃষ্টি হয়েছে। এর কোন স্রষ্টা নেই। আসমান-জমিন, নদ-‎নদী আর কিনারাহীন অথৈ সমুদ্র,সুবিশাল পৃথিবী, গ্রহ-নক্ষত্র এগুলি সবই কালের বিবর্তনে প্রকৃতির সৃষ্টি। ‎কোন সুনিপুণ কারিগর তা নিপুণ হাতে সৃজিত করেননি। ‎ খ. জিন জাতি আগুনের তৈরী, জিন জাতি অপরাধ করলেও… Read more »

ক্যাটাগরীঃ ধর্ম বিষয়ক ৩১

বর্তমান মাযার ও কবর পূজা এবং মুর্তিপূজার ‎সাদৃশ্যতাঃ ভন্ড মাযারপন্থীদের মুখোশ উন্মোচন

শিরকের ইতিহাস হযরত নূহ আ: এর সময় প্লাবণে সকল কাফের মৃত্যু বরণ করার পর সবাই ছিল মুসলমান। ‎তারপর এই মুসলমানদের মাঝে কিভাবে শিরক ঢুকল? এ ব্যাপারে হযরত শাহ ওয়ালী উল্লাহ ‎মুহাদ্দেসে দেহলবী রহ: তার সুবিখ্যাত তাফসিরের মূলনীতির গ্রন্থ “আল ফাউজুল কাবীর” ও ‎তাফসিরের বিভিন্ন গ্রন্থ থেকে মুসলমানদের মাঝে শিরক প্রবিষ্ট হবার যে বর্ণনা পাওয়া যায়… Read more »

ক্যাটাগরীঃ ধর্ম বিষয়ক

অপূর্ণ স্বপ্নের ক্রুর হাসি‍ ‎

আমাদের মায়েরা সন্তানকে লালন করেন অপার স্নেহ আর মমতা ‎দিয়ে। আগলে রাখেন সকল বিপদের হাত থেকে আদরের দুলাল ‎‎/দুলালীকে। গভীর রাতে, অশ্রুসজল চোখে, স্রষ্টার দরবারে প্রার্থনা করেন ‎সন্তানের সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য। কেটে যায় দিন। ছোট্ট শিশুটি মায়ের ‎কোল ছেড়ে হাটতে শিখে। ধীরে ধীরে মিষ্টি কথাও। মায়ের স্বপ্ন বাড়ে। ‎স্বপ্নের বীজে ডালপালা গজায়। কল্পনায় মহিরুহ হয়… Read more »

ক্যাটাগরীঃ মুক্তমঞ্চ

আমি শায়েখ আব্দুর রহমান হলে তুমি কালা জাহাঙ্গীর!‎

২০০৫ সাল। চার দলীয় জোটের দু:সহ শাসনামল। ৬৩ টি জেলায় সিরিজ বোমা হামলা করেছে ইহুদী ‎খ্রিষ্টানদের দোসর জেএমবি সন্ত্রাসীরা। সাম্রাজ্যবাদের মিশন বাস্তবায়নকারীরা মুসলিম প্রধান বাংলাদেশের ‎সাধারণ মুসলমানদের রক্তে আঁকতে চায় সাম্রাজ্যবাদের মানচিত্র। জনপদের পর জনপদ কেঁপে উঠে ‎বোমার বিধ্বংসী উল্লাসে। শান্তির ধর্ম ইসলামকে সন্ত্রাসী রূপে উপস্থাপিত করতে এক ভয়ংকর ষড়যন্ত্রে ‎মেতে উঠে এই জঙ্গীগোষ্ঠি। কোরআনের… Read more »

ক্যাটাগরীঃ নাগরিক আলাপ ১০

তালাক একটি অভিশাপঃ একটি অপপ্রচার

আমরা মুসলমান। পৈত্রিক সূত্রে মুসলমান। বাবা-মা মুসলমান, তাই আমিও মুসলমান। কিন্তু অনেকেই ‎জানেনা মুসলমানিত্বের প্রকৃত মর্ম। ইসলামী রীতিনীতি তাই অনেক সময় আমাদের পথের কাঁটা হয়ে ‎দাঁড়ায়। যেমন “তালাক”। ‎ আমরা মুসলমান বলেই ধর্মীয় কিছু বিষয় মানতে আমরা একান্ত বাধ্য। যেমন-ছেলেদের খাৎনা করানো, ‎বিয়ের সময় দু’জন স্বাক্ষ্য রাখা, মৃত্যুর সময় ইসলামী শরীয়ত মোতাবিক কাফন দাফন ইত্যাদী।… Read more »

ক্যাটাগরীঃ ধর্ম বিষয়ক

হায়রে শহীদেরা!‎

দুর্ভাগা আমি। স্বাধীনতা সংগ্রাম দেখিনি। দেখিনি স্বাধীনতার জন্য পাগল আমাদের পূর্বসূরিদের টগবগে যৌবনের ‎বীরত্বপূর্ণ আত্মত্যাগ। দেখিনি পাকিস্তানী হায়েনাদের নির্মমতা। আমাদের মা-বোনের গগনবিদারী ‎আর্তনাদ। দেখিনি বাংলাদেশের স্থপতি শেখ মুজিবুর রহমানের দীপ্ত ভাষণ। শুনিনি কালুর ঘাট বেতার ‎কেন্দ্র থেকে প্রচারিত শেখ মুজিব স্বাক্ষরিত স্বাধীনতার ঘোষণা জিয়ার প্রদীপ্ত কণ্ঠে। হায়েনা গাদ্দার ‎রাজাকার আল বদর আল শামছের নিষ্ঠুরতা। দেখিনি… Read more »

ইসলামে যুদ্ধাপরাধ কী? ও যুদ্ধাপরাধী কারা?

শান্তির ধর্ম ইসলামে যুদ্ধের মত সহিংস অবস্থানেও মানবতার এক অতুলনীয় দীক্ষা দিয়েছে। অযথা যুদ্ধ ‎ইসলামে কাম্য নয়। তাই ইসলামের যত বড় শত্রুই হোক না কেন তাকে প্রথমে সমঝোতার জন্য আহবান ‎করা হবে। কিন্তু তারপরও যদি কোন কারণে যুদ্ধ বেঁধে যায়, তবে চোরাগুপ্তা হামলা ইসলাম অনুমোদন ‎করেনা। বরং শত্রুকে জানিয়ে দিবে যে, আমরা তোমাদের উপর আক্রমণ… Read more »

সারা পৃথিবীতে একই সময়ে ঈদ: দাবী ও বাস্তবতা

ভুমিকা চাঁদ দেখার উপর নির্ভরশীল ইসলামের অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিধানাবলী। রোজা, ঈদ, কুরবানীসহ হজ্বের মত ইসলামের মৌলিক বিষয়াবলী। সুতরাং চাঁদ দেখার ক্ষেত্রে পরিস্কার ধারণা না থাকলে এই সকল বিষয়ে সমস্যা হতে বাধ্য। সুতরাং প্রতিটি মুসলমানের এ বিষয়ে পরিচ্ছন্ন জ্ঞান থাকা আবশ্যক। ইসলাম একটি সার্বজনীন ধর্ম। গোটা পৃথিবীর সকল অঞ্চলের বিগত-আগত ও অনাগত সকল মানুষের জন্য কার্যকরী… Read more »

ইভ টিজিং না লিলিথ টিজিং?‎

ইভ মানে কী? টিজ শব্দটা ইংরেজী, যার অর্থ হল-বিরক্ত করা, জ্বালাতন করা, নির্যাতন করা ইত্যাদি। কিন্তু ‎ইভ মানে কী? এটা ইংরেজী শব্দ না, এটা হিব্রু শব্দ। যা মূলত নেয়া হয়েছে খৃষ্টানদের বাইবেল ও ‎ইহুদিদের পুরাণে বর্ণিত আদি মানব সৃষ্টির গল্প থেকে। যতটুকু জানা যায় আল্লাহ প্রথমে এডামকে (আদম আ:) সৃষ্টি করার পর তার জন্য একজন… Read more »

‎“ফতোয়া” অপপ্রচারের শিকার এক মজলুম ইসলামী শব্দ

ফতোয়া কী?‎ ফতোয়া হল একটি আরবী শব্দ। যা কুরআন সুন্নাহ তথা ইসলামী শরীয়তের একটি মর্যাদাপূর্ণ পরিভাষা। ‎দ্বীন-ধর্ম সম্পর্কে জিজ্ঞাসার পর একজন দ্বীন ইসলাম সম্পর্কে প্রাজ্ঞ মুফতী কুরআন-হাদীস ও ইসলামী আইন ‎শাস্ত্র অনুযায়ী যেই সমাধান দেন তাই “ফতোয়া”। ইসলামী বিধান বর্ণনাকারীকে বলে “মুফতী” আর যে ‎সকল প্রতিষ্ঠান এই দায়িত্ব পালন করেন তাকে বলে “দারুল ইফতা”। ফতোয়ার… Read more »