রাজধানীতে জলাবদ্ধতা এবং নাগরিক দায় 

গত কয়েক বছর ধরে ঢাকায় এক পশলা বৃষ্টি হলেই রাস্তাঘাট ডুবে যেতে দেখা যায়। পানি সরতে প্রচুর সময় নেয়। জমে থাকা পানিতে বিকল হয়ে পথ রোধ করে পড়ে থাকে যানবাহন। ঢাকায় বৃষ্টি হওয়া মানেই অবধারিতভাবে ভয়ংকর ও দুঃসহ জ্যাম লেগে যাওয়া। বৃষ্টির পর নাগরিকগণ সরকার, রাজনীতিক, মেয়রকে একচোট দেখে নেন। বর্ষার আগে কেন নালা পরিষ্কার… Read more »

কক্সবাজার সমুদ্রসৈকত এবং একটি সম্ভাবনার অপমৃত্যু

কোথাও পড়েছিলাম, যে দেশের কপালে সাগর জুটেছে, তার অর্থনৈতিক উন্নতির গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। একথা বাংলাদেশের জন্য একদমই খাটে না। ছোট ছোট সমুদ্রসৈকত নিয়ে কতই না আদিখ্যেতা আর আহ্লাদ করে কিছু কিছু দেশ। পর্যটকের ভিড় লেগেই থাকে সেসব দেশে। অর্থনীতি চাঙ্গা হতে থাকে তাদের। অথচ পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত থাকা সত্ত্বেও আমাদের সাধের কক্সবাজারে বিদেশি পর্যটক দেখা… Read more »

দ্রুক ডায়েরিঃ থিম্পু থেকে পারো (৫ম পর্ব)

একটি রাত ও একটি দিন পুনাখাতে কাটিয়ে দোচূ লা পাস হয়ে রাজধানী থিম্পুতে এসে পৌঁছলাম পরদিন বিকেলে। শহরের একদম শিরস্ত্রাণে স্থাপিত বিশাল আকারের বুদ্ধমূর্তি। বুদ্ধ দোরদেনমা (Dordenma) মূর্তি। পদ্মাসনে আসীন প্রায় ১৬০ ফুট দীর্ঘ শাক্যমুনি বুদ্ধ থিম্পু শহর তথা ভূটানকে তাঁর আশীর্বাদে স্নাত করছেন।   পদ্মাসনে আসীন বুদ্ধ দোরদেনমা থিম্পু মারাত্মক শীতল। এখানে-ওখানে বরফ হয়ে… Read more »

দ্রুক ডায়েরি: পুনাখা (৪র্থ পর্ব)

তৃতীয় পর্ব… জোংখা ভাষায় ভূটানের নাম দ্রুক। দ্রুকের অর্থ ড্রাগন। ভূটানের সংস্কৃতিতে ড্রাগনের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। যাইহোক, পারোর চেয়ে পুনাখা খানিক উষ্ণতর। ঠাণ্ডার কামড়ের তীব্রতা কিছুটা কম অনুভূত হয় পুনাখা ভ্যালিতে। সমুদ্র সমতল থেকে ১২০০ মিটার উচ্চে পুনাখার অবস্থান। ১৯৫৫ সালের আগ পর্যন্ত তিলোত্তমা ভূটানের রাজধানী ছিলো পুনাখা। ভূটানের বিখ্যাত দুই নদী ফো চূ… Read more »

দ্রুক ডায়েরি: চেলে লা ও দোচু লা গিরিপথ (৩য় পর্ব)

দ্বিতীয় পর্ব… হিমালয়ের আদুরে কন্যা ভূটান হিমালয়ের পূর্বকোল জুড়ে বিস্তার করে আছে। তাই সে এতো শীতল, তাই তার দরকার হয় এতো উষ্ণতা। উষ্ণতার কমতি হলেই অভিমানি কন্যা জমে যায়। টাইগার নেস্ট থেকে নেমে এসে পারো টাউনে দুপুরের খাবার খেলাম। ‘স্পেশাল ফ্রাইড রাইস’ অর্ডার করেছিলাম। আধাঘণ্টা পর খাবার যা আসলো তা দেখে ক্ষুধা পালালো পশ্চিমের পাহাড়… Read more »

দ্রুক ডায়েরি: টাইগার নেস্ট (২য় পর্ব)

প্রথম পর্ব  দু-দিন রিসোর্টের কনফারেন্স রুমে সিরিয়াস অফিসিয়াল মিটিংয়ে কেটেছে। বিরতির সময়গুলোতে এবং বিভিন্ন ছুতোয় বের হয়ে আমার দু-চোখ চোরের মতো অপ্সরাকে খুঁজেছে। একবার লবিতে ইতিউতি করছিলাম। একটা কন্ঠ বলে উঠলো, ‘তুমি কি কাউকে খুঁজছো?’ চমকে উঠে তাকিয়ে দেখি তৈলচিত্র থেকে উঠে আসা অপ্সরী অদূরে দাঁড়িয়ে মিটিমিটি হাসছে। ধরা পড়ে গেলাম। এই ধরা পড়ায় লজ্জার… Read more »

দ্রুক ডায়েরি: ড্রাগনের দেশে (১ম পর্ব)

চঞ্চল ইঁদুরের মতো একটা ক্ষিপ্র দৌড় শেষ করে ছোট্ট একটা লাফ দিয়ে শূন্যে উড়াল দিলো উড়োজাহাজ। যেন উচ্চলম্ফের এথলেট শক্তি সঞ্চয়ের দৌড়টুকু শেষ করে মিটার কয়েক উড়ে গিয়ে মাটিতে নেমে এলো। পার্থক্য হলো দ্রুক এয়ারের এয়ারবাসটি কয়েকশত মাইল দূরের ড্রাগনের দেশ হিম হিম ভূটানে গিয়ে উচ্চলম্ফ শেষ করেছে। ট্যাক্সিং করে থামার পর উড়োজাহাজের পেট থেকে… Read more »