পাপস্খলন প্রকল্প “পুষ্পিতা এখানে প্রথম নয়”

বিভিন্ন সময়ে জামায়াত সমর্থকদের একাত্তরের পাপমোচন প্রকল্পের সফল ধারাবাহিকতা পুষ্পিতার ব্লগ পুষ্পিতা গত এক মাস ধরে তার শিক্ষাবছরের অধিকাংশ সময়টাই রাজনৈতিক বিবেচনায় লিখিত বিভিন্ন ইতিহাস পুস্তিকা পাঠ করে কাটিয়েছেন, তিনি সেসবের উপরে ভিত্তি করে অদ্যাবধি ছয় পর্বের জামায়াতের পাপ স্খলন প্রকল্প হিসেবে যুদ্ধাপরাধ ইস্যুতে বিভিন্ন আকর্ষণীয় ব্লগ লিখেছেন, তার সমর্থক গোষ্ঠীর অভিমত অনুসারে সেসব যথেষ্ট… Read more »

মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার প্রক্রিয়ায় আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপ এবং জামায়াতের পদক্ষেপ

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ আন্তর্জাতিক অপরাধ(ট্রাইব্যুনাল) আইন সংশোধনের সুপারিশ করেছে, প্রকাশিত সংবাদ অনুসারে মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার-প্রক্রিয়া আরও স্বচ্ছ ও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন করতে সাত দফা সুপারিশ করা হয়েছে। সে সুপারিশগুলোর ভেতরে রয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ(ট্রাইব্যুনাল) আইনে যুদ্ধাপরাধ, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যার আরও সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা দিতে হবে অভিযুক্তদের ট্রাইব্যুনাল আইন ও এর সদস্যদের নিয়োগ চ্যালেঞ্জ করার সুযোগ অভিযুক্তদের সাংবিধানিক… Read more »

রাষ্ট্রের নিরপরাধ নিরাপত্তাহীন পুলিশ

রাষ্ট্র বিমূর্ত একটি ধারণা, আইন শৃঙ্খলা রক্ষীবাহিনীর সদস্য হিসেবে পুলিশ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সেই বিমূর্ত রাষ্ট্রের প্রতিকী উপস্থিতি এবং পুলিশের আচরণে মানুষ রাষ্ট্রের প্রতিনিধিত্ব দেখে। উর্দি বিহীন পুলিশ দেশের যেকোনো বিচ্ছিন্ন একজন নাগরিক কিন্তু পুলিশের উর্দি তাকে বিশিষ্টতা দিয়েছে, রাষ্ট্রের যাবতীয় ব্যর্থতা দায় বহন করে টহল পুলিশ, সাধারণ নাগরিক তাদেরই সবচেয়ে কাছে থেকে দেখে, আশ্বস্ত… Read more »

পুষ্পিতার চার পর্বের লেখা পড়ে

[ মন্তব্য মডারেশনে রাখা সব সময়ই আপত্তিকর, সুতরাং মন্তব্যের বদলে আলাদা করে পোষ্ট লিখতে হলো ] আপনার ব্যপক তথ্যসমৃদ্ধ লেখাটা পড়লাম, খুব বেশী মনোযোগ দিয়ে পড়তে পারি নি স্বীকার করে নিচ্ছি। তবে সূচনা পর্বে আপনি যুদ্ধাপরাধীদের সংজ্ঞা দিয়েছেন, চমৎকার সংজ্ঞা নিঃসন্দেহে, তবে ২০০৯ সালের ২৫শে মার্চ যে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের প্রস্তাবনা পাশ হয়েছে সেটা “মানবতার… Read more »

সাংবিধানিক বিতর্ক

কলহপরায়ন দুই নারী এবং তাদের নেতৃত্বে পরিচালিত দেশের প্রধান দুইটি রাজনৈতিক দলের স্যাঙাত ও সমর্থকদের ভেতরে এই দুই নারীর স্বামী ও পিতার ঐতিহাসিক ভুমিকার পরিমাণ ও গুরুত্ববিবেচনার বিবাদে আটক বাংলাদেশের ইতিহাস। এই বিবাদে অনর্থক জড়িয়ে পড়েছেন দেশের বুদ্ধিজীবী সমাজ, তারা বিভিন্ন সময়ে এই দুইজন ঐতিহাসিক মহাপুরুষের বিভিন্ন কর্মকান্ড এবং তাদের ঐতিহাসিক ভুমিকার পরিমাণ নির্ধারণ করেন,… Read more »

কত হাজার মরলে পরে মানবে তুমি শেষে

র‌্যাবের সপ্তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাজধানীর বেশ কয়েকটি রাস্তার মোড়ে র‌্যাবের বিশালাকৃতির বিজ্ঞাপন ঝুলছে, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নয়নে র‌্যাবের ভুমিকা যতই প্রশ্নবিদ্ধ হোক না কেনো আইনের প্রতি ন্যুনতম শ্রদ্ধা বিহীন এই বাহিনীর জন্য বিশেষ বরাদ্দের পরিমাণ কমে নি, তাদের উন্নততর প্রশিক্ষণ, তাদের উন্নত আগ্নেয়াস্ত্র, তাদের জন্য বিশেষায়িত ব্যবস্থা টেলিফোনে আড়ি পাতার ব্যবস্থা, এতসব সুযোগ সুবিধা পাওয়া এই… Read more »

ছাগল লাফায় খুঁটির জোরে

যেকোনো একটি দেশে যেকোনো একটি সময়ে ক্ষমতাবানদের ভেতরে যুথবদ্ধতার শর্ত সবসময়ই ক্রিয়াশীল ছিলো, রাজনৈতিক মতবিরোধ, রাজপথের সহিংস বৈরিতা পারস্পরিক হৃদ্যতার সম্পর্কে বাধা হয়ে দাঁড়ায় না কখনও। ক্ষমতাবানদের সমর্থনের প্রশ্নে পেন্ডুলামের মতো দোদুল্যমান বুদ্ধিজীবী শ্রেণীর মানসিক টানাপোড়েন থাকলেও রাজশক্তির আশীর্বাদপুষ্ট বুদ্ধিজীবী শ্রেণীর মানসিক সুবিধালোভী চরিত্রের কোনো পরিবর্তন আসে না। ক্ষুদ্রঋণ আদৌ বিদ্যমান দারিদ্রের বিরুদ্ধে কার্যকর কোনো… Read more »

ক্যাটাগরীঃ গণমাধ্যম

পুরোনো প্রতিক্রিয়া

জনপ্রিয় ঔপন্যাসিক হুমায়ুন আহমেদ ‘দরজার ওপাশে’ উপন্যাসে মাননীয় বিচারকের বিরুদ্ধে অশোভন মন্তব্য করবার জন্য আদালত অবমাননার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়। সে উপন্যাসে হুমায়ুন আহমেদের নির্মিত চরিত্র মন্তব্য করেছিলো আদালতের বিচারকেরা ঘুষ খাওয়ার জন্য কাতল মাছের মতো হা করে থাকে। সেই মন্তব্য আমাদের স্পর্শ্বকাতর বিচারকদের আত্মসম্মানকে আহত করেছিলো। ২০ শে জানুয়ারী সংবাদপত্রে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে জানা… Read more »

নদী আর সবুজ খুনের ছাড়পত্র কাউকেই দেওয়া ঠিক না

আজ সোমবার বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও শেখ মো. জাকির হোসেন সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) করা এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট অননুমোদিত বেসরকারি আবাসন প্রকল্পের বিজ্ঞাপন ও সব ধরনের প্রচারণা বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। একই সঙ্গে অননুমোদিত আবাসন প্রকল্পগুলোর বিলবোর্ড অবিলম্বে সরিয়ে নিতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গত বছর ২৬শে জুন… Read more »

দিনপঞ্জি ধাঁচের ওয়েবলগ থেকে “নাগরিক সাংবাদিকতা”র উত্থান

“ব্লগিং” কিংবা নিজের অন্তর্জালিক দিনপঞ্জি লিখে রাখা এবং “নাগরিক সাংবাদিকতা”র তফাতটা কতটুকু? আমি নিজে এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ নই কিন্তু আমার যেকোনো মতামত শুধুমাত্র ব্যক্তিগত অনুসিদ্ধান্ত কিংবা পর্যবেক্ষণ, সুতরাং যেকেউ আহত হলে সেটা মতাদর্শিক কিংবা দার্শনিক বিরোধজনিত অনুভূতি। যখন দিনপঞ্জি ধাঁচের ওয়েবলগ রাখবার ধারণার জন্ম হয়েছিলো তখন এটার ভবিষ্যত ” নাগরিক সাংবাদিকতা”য় সমাপ্ত হবে এমনটা সবাই… Read more »