ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

ঈদের এক দিন আগের রাএে বেইলি রোডের বেইলি স্টার মার্কেট থেকে বের হয়ে বাসায় যাওয়ার জন্য যখন রিক্সা পাচ্ছিলাম না তখন সামনে এগিয়ে রিক্সা খুঁজতেছিলাম । আমি যখন সিদ্ধেশ্বরী মহিলা কলেজের সামনে এসে পৌঁছলাম তখন দেখতে পেলাম , হেংলা-পাতলা লিক-লিকে শরীরের একটা লোক একজন পুলিশের দিকে হঠাৎ তেঁড়ে এসেই একেবারে পুলিশের মুখোমুখি এবং পুলিশের কেমন যেন থতমত অবস্থা ! একটু এগিয়ে শুনতে চাইলাম হেংলা-পাতলা এই লোকটি পুলিশকে কী বলছে ? এবার শুনতে পেলাম লোকটি পুলিশকে উদ্দেশ্য করে বলছে , চুদির ভাই বলছেন কেন ? আর পুলিশ বলছে গাড়ি এখানে রাখছেন কেন ? হেংলা-পাতলা লোকটিকে দেখলাম একাবারে মারমুখি !

পুলিশ থতমত অবস্থায় বাধ্য হয়েই পিছনে সরে আসলো আর বিড় বিড় করে বলতে লাগলো, বলছি তো কি হইছে! অপরাধ করবো আবার ভাবও দেখাইবো ! এবার আমি লোকটির দিকে ভালো করে তাকালাম হেংলা-পাতলা গড়নের লোকটির পরনে ট্রাউজার্স আর টি-শার্ট এবং পায়ে সেন্ডেল ! লোকটি ড্রাইভারই হবে মনে হয়, তবে সাহসি ও প্রতিবাদি ! পুলিশকে দেখে এসআই বা এএসআই হবে বলে মনে হচ্ছে , এবার ইচ্ছা জাগলো পুলিশের নামটা জানার আমি যেই না নামটা দেখার জন্য বাম দিকে তাকাচ্ছিলাম ওনি আর ও বামে ঘুরে গেলেন আমিও তার বাম দিকে এগিয়ে গেলাম এবার তিনি তার নেমপ্লেইটের উপর হাত রেখে দ্রুত আমার পাশ দিয়ে সামনে এগিয়ে গেলেন, আমি যাতে তার নামটা দেখতে না পারি !

সামনে এগিয়ে গিয়ে পার্কিং করে রাখা আরেকটা গাড়িতে হাতদিয়ে জোরসে আঘাত করলেন আর বললেন, গাড়ি এখানে রাখছে কে? সাথে সাথে ঘটলো আরেক বিপত্তি! এবার গাড়ি থেকে পরিপাটি এক ভদ্রলোক বের হয়ে হুংকার দিয়ে বলে উঠলো, কে গাড়িতে আঘাত করলো, এত বড় সাহস? এবং সঙ্গে ভাষায় প্রকাশ অযোগ্য গালি! এবার পুলিশ বেচারা একেবারেই ….. ! থতমত অবস্থায়ই পুলিশ বললো , স্যার আমি! সেই লোকটি বললো, তুমি আমাকে চিনো? পুলিশ বললো, জ্বী স্যার ! লোকটি বললো , যাও ….. ! পুলিশ বললো, জ্বী স্যার ! যেতে যেতে পুলিশ বিড় বিড় করে বলতে লাগলো, ‘নিজেরা আইনের কথা বলে নিজেরাই আইন অমান্য করবে, আবার গালি ও মারবে’!

বেচারা পুলিশ !!! সময়টা তাঁর বড্ড খারাফই বলতে হয় !