ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

১৫ আগস্ট আর মাত্রই কয়েকদিন দেরী। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদিন সপরিবারে নিহত হয়েছিলেন। আমাদের স্বাধীনতা অর্জনে তার অবদান জাতি কখনও ভোলেনি, ভুলবে না। তার স্মৃতি বাঙালির হৃদয়ে গাঁথা আছে। তার অবদান বাঙালির ইতিহাসে লেখা আছে। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি তিনি।

শেখ মুজিবুর রহমান হৃদয় থেকে বেরিয়ে এবার টাকার নোটে এলেন। এর আগেই তাকে ১০ টাকায় ছাপা হয়েছিলো। এবার তাকে ২ টাকায় নামানো হলো। ২ টাকার নোটে দোয়েল পাখির ছবিটা বুঝি বড়োই বেমানান ছিলো?

শেখ হাসিনা বলেছেন, টাকা থেকে মানুষ ইতিহাস জানবে। সত্যিই কি তাই জানবে? দশ টাকার নোটে তার ছবি ছাপিয়ে দিয়ে কতোটা ইতিহাস জানানো গেছে তার কোনো পরিসংখ্যান কি জানা গেছে? তবে, ইতিহাস একটা জানা যাচ্ছেই। একটা সময় ছিলো বঙ্গবন্ধুর ছবি পেলে মানুষ তাকে সযত্নে তুলে ঘরে নিয়ে যেতো। আর এখন টাকায় কেউ চুমু খাবে, কেউ থুথু দেবে!

প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি সংবলিত ২, ৫, ১০০, ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট অবমুক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী। এ দিনটিকে ঐতিহাসিক বলেও আখ্যায়িত করেন তিনি। অনেক ঐতিহাসিক দিনই বাঙালির রয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে কম মূল্যমানের টাকার নোটে ছাপিয়ে দেয়াটা কতোটা ঐতিহাসিক হলো আবার বেশি টাকার নোটে ছাপিয়ে তার দামই বা কতোটা বাড়ানো হলো?

আমাদের জাতির জনককে হৃদয়ে ধারণ করার কথা না বলে এখন নামকরণে আর ছাপার নোটে ধারণ করার শিক্ষা দিচ্ছেন তারই কণ্যা , আওয়ামী সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

তবে, এ শিক্ষা কতোদিনের সেটাই তো জাতি আবার গুনতে না শুরু করে!

***
ফিচার ছবি: জহুরুল ইসলাম স্ট্রীম এর আমাদের নতুন সিরিজের টাকা দেখুন [সামহোয়্যার ইন ব্লগে প্রকাশিত হয়েছে ১০ ই আগস্ট, ২০১১ সকাল ১১:২৪] শীর্ষক পোস্ট থেকে সংগৃহিত