ক্যাটেগরিঃ প্রযুক্তি কথা

 

বাংলাদেশে চাহিদা অনুযায়ী গ্রীড বিদ্যুত্‍ কম বলে বিকল্প বিদ্যুতায়ন ব্যবস্থা চলছে অনেকদিন ধরেই | এ জন্য নবয়ায়ন যোগ্য জ্বালানি বা রিনিউয়াবল এনারজি হিসাবে সোলার পাওয়ার ব্যাবহার হচ্ছে ব্যাপকভাবে । কিন্তু সোলার পাওয়ার ব্যাবহারে শুধু দিনের বেলাতেই বিদ্যুত্‍ শক্তি উত্পাদন করা যায় আর শীত কালে বিদ্যুত্‍ উত্পাদনের পরিমাণ 25% পর্যন্ত কমে আসে | এই অসুবিধা এবং বৈশ্বিক উষ্ণতার কথা চিন্তা করে যেকোনো তাপ শক্তিকে বিদ্যুত্‍ শক্তিকে রূপান্তর করার বিষয়ে বিজ্ঞানীরা তত্পর হয়েছেন | এতে করে 24 ঘণ্টা বিদ্যুত্‍ উত্পাদন ও পরিবেশ রক্ষাও হবে বলে তারা মনে করেন | তাই পশ্চিম বিশ্ব ও চীন জাপানে অপচয় হওয়া তাপ শক্তিকে বিদ্যুত্‍ শক্তিতে রূপান্তর করার প্রচেষ্টা শুরু হয়েছে | ইদানিং নাসা ও কয়েকটি বিমান এই প্রযুক্তিতে অনবরত বিদ্যুত্‍ উত্পাদন ও ব্যাবহার করছে | আমাদের দেশের গ্রামে রান্নার জন্য চুলায়ে প্রতিদিন তিনবেলা যে তাপ শক্তি অপচয় হয় তা দিয়েই সেই বাড়িটির প্রয়োজনীয় বিদ্যুত্‍ চাহিদা মেটানো সম্ভব | এমনকি হোটেল রেস্তোরাতে চুলার আগুন থেকে পাওয়া তাপ দিয়েও পর্যাপ্ত বিদ্যুত্‍ উত্পাদন সম্ভব অতিরিক্ত জ্বালানি খরচ ছাড়াই |

তাপ শক্তিকে বিদ্যুত্‍ শক্তিতে যে যন্ত্রটি রূপান্তর করে তার নাম থার্মো ইলেকট্রিক জেনারেটর | এটি একটি অনেক পুরোনো প্রযুক্তি যা 2 টি ভিন্ন ধাতু একসাথে তাপ প্রয়োগে বিদ্যুত্‍ উত্পন্ন করে |

24 ঘণ্টা বিদ্যুত্‍ উত্পাদনে সক্ষম এই থার্মো ইলেকট্রিক জেনারেটর ব্যাবহার করা যাবে আর্মি ক্যাম্প, পাহাড়, দ্বীপ এবং বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল সমূহে | অর্থাত্‍ যেখানেই চুল জ্বালানোর বিষয় আছে সেখানেই এটি চালানো যায় | থার্মো ইলেকট্রিক জেনারেটরটির আর একটি সবচেয়ে বড় সুবিধা হল যেখানে খুশি এটিকে নিয়ে যাওয়া যায় |

15 ওয়াট থেকে শুরু করে 45 ওয়াট পর্যন্ত থার্মো ইলেকট্রিক জেনারেটর পাওয়া যায় | এর সবচেয়ে ভাল প্রয়োগ হল রেচার্যেবল ব্যাটারি চার্জ করে উত্পাদিত বিদ্যুত্‍ ধরে রাখা এবং প্রয়োজন মত ইউজ করা |

আপনার এলাকায় এই থার্মো ইলেকট্রিক জেনারেটর-এর বাস্তব প্রদর্শনীর জন্য যোগাযোগ করুন 01754990786 এই নম্বরে | শীঘ্রই এটি বাণিজ্যিকভাবে বাংলাদেশে আসছে |

থার্মো ইলেকট্রিক জেনারেটর is on the stove and producing electricity