ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

ছাত্রলীগের বেপরোয়া গতি বন্ধে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের কোন উদ্যোগ নেই কেন? তাহলে আমরা কি মনে করতে পারি না এটা তাদেরই মৌন সম্মতিতে হচ্ছে। তাহলে আগে তাদেরই বিচার করা উচিত। আদালতে অনেক কাজ কেন করা হচ্ছে কেন অবৈধ নয় তা জানতে রুল জারি করে থাকে। আমার মতে, ছাত্র রাজনীতির নামে এ সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বন্ধে কেন সরকার বা তৎসংশ্লিষ্ট দল ব্যবস্থা নিবে না তা জানতে রুল জারি করা প্রয়োজন। আর আদালতেই এ সমস্যার সমাধানে একমাত্র পথ হতে পারে। বিবেক আমাকে নাড়া দেয়। আর কত রক্তের হলিখেলা চলবে। দেশটাকে কি আমরা তরুণরা নতুন করে সাজাতে পারি না। আসুন না যুবক ভাই ও বন্ধুরা ব্লগারদের নিয়েই এ কাজ শুরু করি। কিন্তু কিভাবে ? ভাবতে থাকুন । একদিন সবার ভাবনা এক হলে কোন এক স্থান থেকে ডাক আসবে । আর তখনই নতুন করে দেশকে সাজাতে ঝাঁপিয়ে পড়ব|