ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

কোনটা সত্য কোনটা মিথ্যা তা আমরা কেও বিচার না করে একেক জনে একেক মন্তব্য করে থাকি । বিশ্বব্যাংক যে দুর্নীতির শব্দ টি তুলেছে তা কথাটুকু সত্য এবং তা কিভাবে আপনি মেনে নিবেন? দুর্নীতির সংজ্ঞা আমরা এদেশের অর্থাৎ বাঙ্গালী কয়জনে জানি এবং কোন কাজ গুলি এর আওতায় পরে । বিশ্বব্যাংক দুর্নীতি তুলেছে ঠিকাদার নিয়োগ নিয়ে । আসলে কি ঠিকাদার আবুল হোসেনের পছন্দের নাকি বিশ্বব্যাংক এর অপছন্দের ( বিশ্বব্যাংক এর পছন্দের ঠিকাদার নিয়োগ না করা )। পদ্মা সেতু অর্থায়নে দাতা দেশ হিসাবে শুধু বিশ্বব্যাংক একা নয় তার সাথে আরও তিনটি সংস্থা/দেশ আছে । তাহলে বিশ্বব্যাংক একা দুর্নীতির শব্দ টি তুলেছে কেন? এটা কি ভেবে তোলার বিষয় নয় কি? তাহলে দুর্নীতির শব্দটি কার ঘাড়ে গিয়ে পরে আবুল হোসেনের নাকি বিশ্বব্যাংক এর? বিরোধিতার খাতিরে বিরোধীতা করতে হয়। আসলে আমাদের দেশের বিরোধীদল রাজনীতির খাতিরে বিরোধীতা করতে হয়। তারা জানে দুর্নীতির সংজ্ঞা এবং দুর্নীতির শব্দটি কার ঘাড়ে বর্তাবে। যাই হোক বর্তমান সরকার যে উদ্বেগ নিয়েছে তা বাংলাদেশের future এর জন্য মঙ্গল জনক। তাই বর্তমান সরকারের পাশে থেকে তাকে সহযোগিতা করা আমাদের উচিৎ। কিন্তু আমরা তা না করে তিরস্কার করি এটা হলও আমাদের জাতির ধর্ম। আসুন জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সবাই একসাথে কাজ করি।