ক্যাটেগরিঃ প্রশাসনিক

 

সেবা গ্রহণকারিকেই ট্যাক্স – ভ্যাট পরিশোধ করার নিয়ম আমাদের বর্তমান ব্যবস্থায়। হাসপাতালে মোটা অংকের বিল এবং ট্যাক্স – ভ্যাট রোগীকেই পরিশোধ করতে হয়, হাসপাতালওয়ালারা একদিনের জন্য একটা বেডের ভাড়া রোগীর কাছ থেকে আদায় করে ২০০০ থেকে ২০০০০ টাকা প্রতিদিন, তার পরও ট্যাক্স – ভ্যাট ওদের ব্যবসা থেকে না দিয়ে মরার ওপর খাড়া রোগীকেই শোধ করে হয় বাড়ীতে নয় কবরস্থানে যেতে হয়। ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যে বিল আদায় করা হয় আধা মরা রোগীর কাছ থেকে তার ৯৫ শতাংশই লাভ । এর ওপর ভ্যাট আদায় করা হয় রোগীর কাছ থেকেই, দোকানে কেনা কাটা করেন- ভ্যাট ক্রেতাকেই পরিশোধ করতে হয়। দোকানদার বা সুপারস্টোর পরিশোধ করে না ভ্যাট। এরকম সকল ক্ষেত্রেই সেবা গ্রহিতার ট্যাক্স ভ্যাট পরিশোধ করার নিয়ম আমরা সকলেই পালন করে থাকি।

অতএব বাড়ীভাড়া বাড়ীওয়ালা ভাড়া গুনে নিবে ট্যাক্স হিসাব করেই , আমরাও হাসি মুখেই দিবো।এতে কেন ব্যতয় হবে কেন ? বাড়িওয়ালা অনেক আগে থেকেই ইনকাম ট্যাক্স পরিশোধ করছে, সিটি কর্পোরেশন এর হোল্ডিং ট্যাক্স পরিশোধ করে আসছে । পয়ঃনিস্কাশন কর থেকে রাস্তায় যে বাতিটি জ্বলে তার ট্যাক্স ও বাড়ীওয়ালাকেই পরিশোধ করতে হচ্ছে । অতএব আমরা ভাড়াটিয়ারা নিশ্চয়ই ’আবুল মাল -ট্যাক্স’ টি ও বাড়ীওয়ালার ঘাড়ে চাপাবার মত অন্যায় আবদারটি করবো না।