ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

বিষয়টি সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত। ব্লগিং জগতের বিষয়বস্তুর বাইরে ব্লগারদের ব্যক্তিগত, পারিবারিক বা সামাজিক যে কোন ধরনের কাজকর্ম, প্রয়োজন এবং সমস্যা যদি ব্লগার হবার ‘অপরাধের’ সাথে গুলিয়ে ফেলা যায়, তবে পরিণতি গুরুতর হবে এতে কোন সন্দেহ নেই ।

আগেই বলেছি বিষয়টি সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত , সব সমস্যা প্রকাশ্যে আনা স্বস্তিদায়ক হয়না । আমিও চেপে রাখতে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি । এ ধাক্কায় প্রকাশ্যে না এনে পারলাম না ।

সংক্ষেপে বললে এরকমঃ ঢাকার উপকন্ঠে আমাদের খরিদকরা ৩০ শতাংশ জমি একটি কুচক্রি জালিয়াত গ্রুপ ৬/৭ বছর আগে পর্যন্ত আমাদের থেকে কিনে নেওয়ার চেস্টায় ব্যর্থ হয়ে তহসিল অফিসের দুষ্টচক্রের সহায়তায় জালিয়াতির মাধ্যমে নামজারি করেছে এবং  গোপনে বিক্রি করার পাঁয়তারা করছে জানতে পেরে আদালতে দেওয়ানী মোকদ্দমা করি । দুই বছর পর বিজ্ঞ আদালত স্থিতাবস্থা এবং বিক্রয়/ হস্তান্তরের বিপরীতে একটি অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারী করেন ।

চক্রটি এবার অস্থির হয়ে উঠে । শুরু হয় হুমকি ধমকি । ৭/১২/২০১৫ তারিখে সংশ্লিষ্ট থানায় জিডি করি । এরপর স্থানীয় টাউটচক্র তাদের সাথে যোগ দিয়ে হুমকির ধরন বদল করে । এবারের হুমকিটি আমার গ্রামের বাড়িতে এসে প্রকাশ্যে দিয়ে যায় অন্য কৌশলে । “আপনি তো ব্লগার, মামলা প্রত্যাহার না করলে সাইজ হবেন, সবাই জানবে ব্লগার সাইজ হয়েছে, বুঝেনই তো ।”

১৯ / ১২/ ২০১৫ তারিখে রাত ১১ঃ৪০ এ ঘটনা জানিয়ে আবার একই থানায় জিডি করেছি ।

কোথাকার পানি কোথায় গড়াচ্ছে বুঝতে পারছিনা ? ব্লগ লিখে ব্লগার হবার দায় কিসের সাথে কিভাবে তালগোল পাকিয়ে দুষ্ট চক্রটি ফায়দা লুটতে পারে তা চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে এখন আমার জন্য।

অবস্থা যা দেখছি তাতে আর বিষয়টি গোপন রাখা গেলনা ।