ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

 

রবীন্দ্রনাথের এই গানের সাথে গলা মিলায়ে বলতেছি আহা কি আনন্দ আকশে বাতাশে
আজ আমি আনন্দিত শুধু আমি না আমার সাথে বাংলার ১৪ কোটি মানুষ আনন্দিত ।

বুদবার যখন জানতে পারলাম সাঈদীর রায় ঘোষণা হবে বৃহস্পতিবার তখন থেকেই খুব উত্তেজনার মধ্যে ছিলাম কি হবে রায় ? অপেক্ষা করতে পারছিলাম না কখন ঘোষণা হবে কখন ঘোষণা হবে রায় । সকালে ঘুম ভাংল টিভির সব্ধে বল্লাম এত সকালে টিভি কেন চালু করছিস বলে রায় ঘোষণা হবে আমি বল্লাম এখন বাজে সকাল ৬টা এখন কিসের রায় সবাই রায় সুনার জন্য অস্থির হয়ে আসে কেউ জেন আর অপেক্ষা করতে পারছে । তখনি ঘুম থেকে উঠে পরলাম কিছু সুমায় টিভি দেখে গোসল করে নাস্তা করে বের হলাম বাসা থেকে গেলাম শাহবাগ তখন বাজে সকাল ১০টা সবাই প্রস্তুতি নিতেছে মিছিলের জন্য । মিছিল বের হয়ে গেল আমি আর আমার ১ বন্ধু মিছিলে না গিয়ে ট্রাইব্যুনালের অখান থেকে একটু ঘুরে আসলাম বই মেলাতে । বই মেলাতে এসে দেখি বই মেলার ওখানে যে টিভি টা চলতেছে ওখানে অনেক মানুষ দারায়ে আছে আমি বললাম রায় ঘোষণা করছে বলল না রায় পরতেছে ১২০ পাতার রায় ঘোষণা হয়েছে সেটা পরতেছে । একটা একটা করে অপরাধ প্রমান এর খবর আসতেছে সাথে সাথে চিৎকারে ফেটে যাইতেছিল বই মেলা প্রাগন সবাই এত আনন্দিত সাথে উত্তেজনা পূর্ণ এক সাথে সম্পূর্ণ বাংলা আ ভাবে আনন্দিত সাথে উত্তেজনা পূর্ণ খুব কম দেখা । বাংলাদেশ যখন ক্রিকেট খেলায় জিতে তখন এ রকম আনন্দ এবং উত্তেজনা একসাথে দেখা যায় তখন কার অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না ।।

জয় বাংলা
এখন শুধু অপেক্ষা রায় কাজ্জকর হওয়া এবং ৪২ বছরের কলঙ্ক থেকে মুক্তি পাওয়া