ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

 

সংবাদ মাধ্যম হিসেবে বিডিনিউজ২৪.কম গুরুত্ব ও গ্রহণযোগ্যতা অসাধারণ, প্রশ্নাতীত, ক্রমবর্ধমান। বিগত কয়েক বছরে ঘটে যাওয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ সংবাদের প্রথম পরিবেশক হিসেবে বিডিনিউজ২৪ এর ভূমিকা ছিল প্রশংসনীয়। গুরুত্বপূর্ণ এই সংবাদ মাধ্যমের গুরুত্ব আরো বৃদ্ধি পেয়েছে এর ব্লগিং অধ্যায়ের কারণে। পৃথিবীর বড় বড় অনেক সংবাদ মাধ্যমের ওয়েব সাইটে ব্লগিং এর সুবিধা আছে যদিও অধিকাংশ ক্ষেত্রে তা নিজস্ব সাংবাদিক ও প্রতিবেদকদের জন্য নির্দিষ্ট। পাঠকের ব্লগিং করার সুযোগ সে মাধ্যমগুলোতে নেই। আমার জানা মতে, গার্ডিয়ান ইউ কে এবং আলজাজিরা এরকম দুটি মাধ্যম। সে হিসেবে বিডিনিউজ২৪.কম বাংলা ভাষাভাষীদের এগিয়ে নিয়ে গেছে অনেক দূর। সংবাদ এমন একটি বিষয় যা প্রবাহিত হয় তরঙ্গের মত, কখনো আঘাত করে বজ্রের মত, কখনো সৃষ্টি করে চৈতন্যের আলোক প্রভা। ভাঙ্গা, গড়া কিংবা কম্পন– এই তিনটি বৈশিষ্ট্যের অন্তত একটি খুঁজে পাওয়া যায় প্রায় প্রতিটি সংবাদে। বিডিনিউজের সংবাদগুলোও এই বৈশিষ্ট্য বিচ্যুত নয়। সম্প্রতি ড. ইউনূস সম্পর্কীত সংবাদগুলো সত্যের বিচারে উৎরে গেলেও বিতর্ক সৃষ্টি করেছে ইউনুস ভক্ত পাঠকদের মাঝে। এমন বিতর্কের উদ্ভব অস্বাভাবিক কিছু নয়।

বিডিনিউজের ব্লগে আমার আয়ু দুই মাস, রেজিস্ট্রেশন করেছিলাম এ বছরের ফেব্রুয়ারির মধ্যভাগে। সে সময় দিনের হিসেবে ব্লগারদের পোস্টের সংখ্যা ছিল কম এবং পোস্টের বিপরীতে মন্তব্যও খুব একটা চোখে পড়তো না। কিন্তু সময় ও অবস্থা যে অনেকখানি বদলেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। এখন প্রতিদিনই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক পোস্ট এবং পোস্টে মন্তব্য লক্ষ্য করা যায়। সেই সাথে বৃদ্ধি পেয়েছে লগড ইন ব্লগার ও অতিথি ব্লগারের উপস্থিতি। সময়ে এই অবস্থা যে আরো উর্ধ্বমুখী হবে তা প্রায় নিশ্চিত। অনেক ভাল ভাল ব্লগার দারুণ সব বিষয়ে ব্লগিং করেন এই মাধ্যমে। কোন কোন ব্লগ সাইটে আড্ডা মূলক পোস্টের আধিক্য লক্ষ্য করা গেলেও বিডিনিউজে তা ইতিবাচকভাবে অনুপস্থিত। কারণ আড্ডামূলক পোস্ট ব্লগিং ভাবধারার সাথে মানানসই নয়। অনস্বীকার্য, আড্ডা আন্তরিকতা বাড়ায়, সৃজনী শক্তি বৃদ্ধি করে, পারস্পারিক বোঝাপড়ার ভিত মজবুত করে। কিন্তু আড্ডা কখনো ব্লগিং হতে পারেনা। বরং একটি পোস্টের বিপরীতে যে মন্তব্য ও জবাব সংযুক্ত হয় তার মধ্য দিয়েই এক প্রকারের মতবিনিময়ের সুযোগ আছে এবং ভিন্নার্থে এটিও এক প্রকার আড্ডা এবং তা ব্লগিং এর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। তাছাড়া সিটিজেন জার্নালিজম নামক যে ধারণা বিডিনিউজ সৃষ্টি করতে চাইছে সেটিও ব্লগিংকে একটি নতুন মাত্রায় দৃশ্যায়ন করবে। এ সম্পর্কীত একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে জেনেছি কিন্তু কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে আনুষ্ঠানিক কোন পোস্ট আমার চোখে পড়েনি। এ সংক্রান্ত কোন অফিসিয়াল পোস্ট পাওয়া গেলে নবাগত ব্লগারদের কাছে ধারণাটি আরো স্বচ্ছ হতো।

বিডিনিউজ ব্লগে ব্লগিং করে আমি স্বাচ্ছন্দ বোধ করি বটে কিন্তু তা সত্বেও এই ব্লগে আমি ব্যক্তিগতভাবে খানিক অসুবিধাও বোধ করি। সাম্প্রতিক মন্তব্য বলে এই ব্লগে যে সুবিধাটি আছে তাতে কোন পোস্টে নতুন মন্তব্য এলে তা দেখানো হয় উক্ত পোস্টের শিরোনামের মাধ্যমে। এতে পুরোনো কোন পোস্টে কেউ মন্তব্য করলে তা বুঝা যায় খুব সহজে কিন্তু সাম্প্রতিক পোস্টগুলো বুঝতেই বেগ পেতে হয়। তাই অদেখা মন্তব্য যদি সংখ্যা আকারে [যেমন: সাম্প্রতিক মন্তব্য (৩)] দেখাবার ব্যবস্থা থাকতো তবে খুব সহজেই বুঝা যেত কয়টি মন্তব্য অদেখা রয়েগেছে। আশাকরি, ব্লগ সঞ্চালক এ দিকে সচেতন দৃষ্টি দেবেন।

বিডিনিউজ২৪.কম ব্লগ এগিয়ে যাক সেই প্রত্যাশা রইলো।