ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

‘পরিবর্তন’ শব্দটিকে ভোটের রাজনীতিতে জনপ্রিয় করে তুলেছিলেন কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তার স্লোগান ছিল, ‘চেঞ্জ উই নিড।’ তিনি সফল হয়েছিলেন। ব্যাপক ভোটে জয় করেছিলেন হোয়াইট হাউজ ও ওভাল অফিস। এটা ছিল সূচনা। সেই পরিবর্তন তত্ত্বের ঢেউ এসে লাগে বাংলাদেশের রাজনীতিতে, গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগও ভোটের মাঠে ব্যবহার করে পশ্চিমের এই জনপ্রিয় স্লোগানটি। তবে একটু ভিন্ন আঙ্গিকে। বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে বলেছেন, ‘দিন বদলের রাজনীতি।’ তিনিও এই স্লোগান দিয়ে কাকতালীয়ভাবে অর্জন করেন জনতার আস্থা, বিপুল সংখ্যক আসন নিয়ে জয়ী হন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে। আর এবার সিটি নির্বাচনে ব্যাপক ভরাডুবির পর নিজ ভাবমূর্তি ও নারায়নগঞ্জকে পরিবর্তন করতে মাঠে নেমেছেন শামীম ওসমান। তিনি স্লোগান হিসেবে ব্যবহার করছেন, ‘চেঞ্জ ইমেজ, চেঞ্জ নারায়নগঞ্জ।’ (সূত্র: আজকের বাংলানিউজ২৪.কম)

কী চমৎকার এক ধারা। প্রথমজন বিশ্বের একমাত্র পরাশক্তি ও সর্বাধুনিক রাষ্ট্রের প্রধান, দ্বিতীয়জন তৃতীয় বিশ্বের একটি দরিদ্র রাষ্ট্রের সরকার প্রধান এবং তৃতীয়জন সেই রাষ্ট্রেরই একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও গডফাদার। লেখচিত্রে এ এক অধঃমুখী চিত্র।

শামীম ওসমান মন্তব্য করেছেন, তিনি নতুন ধারার রাজনীতি করতে চান, বদলাতে চান ইমেজ। কী হাস্যকর। হত্যা, লুন্ঠন যার মূল কর্ম তিনি বদলাতে চান সমাজ! তাও আবার এমন সময় যখন তার নিজ জনগণ তাকে প্রত্যাখ্যান করেছে। সদ্য সমাপ্ত সিটি নির্বাচনে জনগণ তাকে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে তিনি তাদের নেতৃত্ব দেবার যোগ্য নন। একজন সন্ত্রাসী জনতার ভাগ্য বদলাবার ভার নিতে পারে না। জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলা যার চরিত্র সে কিভাবেই বা তাদের জীবনকে ইতিবাচক পথে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে? এটা অসম্ভব; এটা প্রতারণা।

জনতা শামীম ওসমানের এই ভন্ডামীকে কখনোই স্বীকৃতি দেবেনা। তার প্রমাণ সেলিনা হায়াৎ আইভি। সতর্ক থাকুন আইভি। নির্বাচনে জয়ের মাধ্য দিয়ে আপনার যুদ্ধ কেবল শুরু, শেষ নয়। সদা সতর্ক থাকুন আপনার ‘বড় ভাই’ এই শামীম ওসমান সম্পর্কে। শামীম ওসমানরা কখনো বদলায় না। তারা ভেড়ার লোম পড়া নেকড়ে।