ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

ঢাকা, জুন ১৬ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- “প্রিয় মেঘ আব্বুজি, তোমার জীবনের সবচেয়ে দুঃখের জন্মদিন হয়ত আজ। দিনে দিনে শরীরের মতো হৃদয়ের রক্তক্ষরণও কমে আসে… সেই ভরসাতেই এই কথা বললাম। কোনোভাবে কলম দিয়ে শুভ জন্মদিন কথাটা আসছে না। কী করে এই জন্মদিন শুভ হয় বল?”

সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনির এক মাত্র সন্তান মাহির সরওয়ার মেঘের ষষ্ঠ জন্মদিনে তাকে লিখেছেন তার অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী খালা সিলভী।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি সাগর-রুনি খুন হওয়ার পর এবারই প্রথম বাবা-মাকে ছাড়া জন্মদিন করছে মেঘ, রয়েছে তার নানার বাড়িতে।

শনিবার মেঘের জন্মদিন পালন করছে তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উইলিয়াম কেরী এবং বাবার কর্মস্থল মাছরাঙা টেলিভিশনও।

মেঘের মামা নওশের রোমান আবেগজড়িত কণ্ঠে বলেন, “বেশ ঘটা করেই পালন করা হয়েছিল মেঘের পঞ্চম জন্মদিন। বাবা সাগর সরওয়ার আর মা মেহেরুন রুনি ছিল সেবার। আজ মেঘের ষষ্ঠ জন্মদিন। কিন্তু এবার নেই তারা।”

বোন সিলভীর পাঠানো ফেইসবুকে এই লেখার কথা তিনিই জানান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে।

নওশের জানান, রাত ১২টায় তারা বাড়িতে কেক কাটেন। তবে অন্যবারের মতো উচ্ছ্বাস মেঘের ছিল না।

“মেঘ চুপচাপ ছিল, কারণ জানতে চাইলে বলল, ‘মন খারাপ’। তারপর তাড়াতাড়িই ঘুমিয়ে পড়ে,” বলেন শিশুটির মামা।

তবে সকালে স্কুলে যায় মেঘ। সেখানে স্কুল কর্তৃপক্ষের জন্মদিনের আয়োজন ছিল বলে জানান নওশের।

“তবে স্কুলে বন্ধুদের সঙ্গে দৌড়ঝাঁপ করেছে,” বলেন তিনি।

নওশের জানান, সন্ধ্যায় মাছরাঙা টেলিভিশনে মেঘের জন্মদিন পালন করা হবে। রোববার তারা পারিবারিকভাবে বসুন্ধরায় মেঘের জন্মদিনের উৎসব করবেন।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি সাগর ও রুনিকে যখন তাদের বাসায় হত্যা করা হয়, তখন মেঘও ছিল বাসায়। হত্যাকাণ্ডের পর চার মাস পেরোলেও এখনো এর কোনো কূল-কিনারা করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এএসটি/এমআই/১২৩৩ ঘ.