ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

ইউএসএ, অগাস্ট ১১ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/রয়টার্স)- অন্য লেখকের লেখা চুরি করে কলাম লেখার অভিযোগে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম সিএনএন এর অতিথি ও টাইম ম্যাগাজিনের কন্ট্রিবিউটিং এডিটর ফরিদ জাকারিয়াকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক স¤প্রতি তার একটি কলাম প্রকাশিত হয়। ওই কলামে অন্য এক লেখকের লেখা চুরি করে ব্যবহার করেছেন বলে ফরিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে।

টাইম ম্যাগাজিন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ফরিদ জাকারিয়াকে এক মাসের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে। তার পরবর্তী কোনো লেখা ছাপানো স্থগিত করা হয়েছে। তবে সিএনএন তাকে ‘ভ্রান্ত সাংবাদিকতার’ দায়ে বরখাস্ত করলেও কোনো সময়সীমা উল্লেখ করেনি।

চলতি সপ্তায় টাইম ম্যাগাজিনে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক একটি কলাম প্রকাশিত হয় ফরিদ জাকারিয়ার। এর পরপরই তিনি অন্য এক লেখার সঙ্গে তার লেখা মিলে যাওয়া প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়ে বিবৃতি দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে টাইম ম্যাগাজিন ও সিএনএন তাকে বরখাস্ত করে।

ক্ষমা চেয়ে দেওয়া লিখিত বিবৃতিতে ফরিদ বলেন, “টাইম ম্যাগাজিনে চলতি সপ্তায় প্রকাশিত আমার কলামের একটি প্যারাগ্রাফকে উদ্ধৃত করে তার সঙ্গে এপ্রিলে নিউ ইয়র্কারের ২৩ সংখ্যায় প্রকাশিত জিল লেপোরেসের একটি লেখার মিল পেয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম এ সম্পর্কে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তারা সঠিক। আমি একটি ভয়ঙ্কর ভুল করে ফেলেছি।”

বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, “এটি একটি গুরুতর বিচ্যুতি আর এ সম্পূর্ণই আমার ভুল।”

টাইমের মুখপাত্র আলি জেলেনকো জানান, টাইম ম্যাগাজিন তার ক্ষমাপ্রার্থনা গ্রহণ করেছে। কিন্তু এরপরও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই হচ্ছে, কেননা তিনি এই ম্যাগাজিনের অন্য কলামিস্টের গ্রহণযোগ্যতাও খর্ব করেছেন।”

ফরিদ জাকারিয়াকে বরখাস্ত করার কারণ হিসেবে সিএনএন জানিয়েছে, তিনি সিএনএন ডট কম-এর ব্লগে টাইম ম্যাগাজিনের কলাম হুবহু তুলে দিয়েছেন। সেখানেও ওই একই ভুলের পুনরাবৃত্তি হয়েছে।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত ফরিদ জাকারিয়া ইয়েল ও হার্ভার্ডে পড়াশোনা করেছেন। তিনি ফরেন অ্যাফেয়ারস ম্যাগাজিনের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ছিলেন। তিনি ১০ বছর নিউজউইক ইন্টারন্যাশনালের সম্পাদকও ছিলেন। এরপর ২০১০ সালে তিনি সিএনএন-এ যোগ দেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/সিআর/১২১৯ ঘ.