ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

লাবলু আনসার
নিউইয়র্ক প্রতিনিধি

নিউ ইয়র্ক, অক্টোবর ২২ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে কাজী মোহাম্মদ রেজওয়ানুল আহসান নাফিস নামের এক বাংলাদেশি যুবককে গ্রেপ্তারের ঘটনায় দুই দেশের সম্পর্কে কোনো প্রভাব পড়বে না বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন কংগ্রেসে ‘বাংলাদেশ ককাস’ এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান জোসেফ ক্রাউলি।

নিউইয়র্ক থেকে নির্বাচিত এই ডেমক্র্যাট নেতা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “নাফিসের বিষয়টি সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন একটি ঘটনা। এটি বাংলাদেশের মানুষেরও সমর্থন পাচ্ছে না। এছাড়া আমি নিজেও জানি, বাংলাদেশ সন্ত্রাসের বিপক্ষে। ইতিপূর্বে তারা তা প্রমাণও করেছে।”

বিশ্বে চলমান ‘সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধে’ বাংলাদেশকে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম ‘সহযোগী’ হিসাবে উল্লেখ করেন এই কংগ্রেস সদস্য।

নিউ ইয়র্কের উডসাইডে স্থানীয় সময় রোববার সন্ধ্যায় (বাংলাদেশ সময় সোমবার সকাল) বাংলাদেশি হিন্দু স¤প্রদায়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের এক প্রশ্নের উত্তরে জোসেফ ক্রাউলি বলেন, “নাফিসেরা শুধু যুক্তরাষ্ট্রের শত্রু নয়, ওরা মানবতার শত্রু, সভ্যতার শত্রু। ওদের বিরুদ্ধে সর্বস্তরে প্রতিরোধ গড়তে হবে।”

গত ১৭ অক্টোবর কথিত ‘স্টিং অপারেশনের’ মাধ্যমে নাফিসকে গ্রেপ্তারের পর নিউ ইয়র্ক পুলিশ ও এফবিআই বলেছে, এই বাংলাদেশি যুবক ফেডারেল রিজার্ভ ভবন বোমা মেরে উড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছিল।

২১ বছর বয়সী নাফিসের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্রের ব্যবহার ও জঙ্গি সংগঠন আল কায়েদাকে সহযোগিতা করার অভিযোগ আনা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে। দোষী সাব্যস্ত হলে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।

নাফিসকে বর্তমানে রাখা হয়েছে ব্রুকলিনের কারাগারে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হবে কি না- সে সিদ্ধান্ত নিতে পুলিশের অভিযোগপত্র গ্র্যান্ড জুরিতে পাঠানো হয়েছে। এই জুরি বোর্ডই জানাবে, নাফিসের বিরুদ্ধে মামলা চলবে কি না।

এদিকে প্রবাসী বাংলাদেশিরা সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসে এক সন্ত্রাসবিরোধী মানববন্ধনের আয়োজন করেন। জোসেফ ক্রাউলিকে এ সম্পর্কে অবহিত করেন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘সেইভ বাংলাদেশ মুভমেন্ট’ এর প্রেসিডেন্ট ডা. শাহ আলম।

প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রশংসা করে মার্কিন কংগ্রেস সদস্য বলেন, “বাংলাদেশিরা শান্তিপ্রিয় ইমিগ্র্যান্ট, এটি সকলেই জানেন। প্রবাসী বাংলাদেশীদের এই চেতনা বাংলাদেশের সব অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়–ক এবং সন্ত্রাসীদের মূলোৎপাটনে তা শানিত হাতিয়ারে পরিণত হোক-এ প্রত্যাশা করছি।”

‘বাংলাদেশ লীগ অব আমেরিকা’ আয়োজিত ওই মানববন্ধনে প্রবাসীদের সংগঠন ‘জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন,’ ‘যুক্তরাষ্ট্র যুব কমান্ড,’ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, তারেক পরিষদ আন্তর্জাতিক কমিটি, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগ, যুক্তরাষ্ট্র ঐক্য পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী আইনজীবী পরিষদসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন সংহতি জানায়।

মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীদের হাতের ‘সন্ত্রাসীদের রুখে দাঁড়াও’, ‘সন্ত্রাসীরা যুক্তরাষ্ট্র, বাংলাদেশসহ সকল অঞ্চলের সকল মানুষের শত্রু’- ইত্যাদি লেখা প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/জেকে/১০৩০ ঘ.