ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, এপ্রিল ২০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলেকে ‘গুম করে দিতে’ আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ (আবেদন) জানিয়েছেন ইসলামি ঐক্যজোটের একাংশের চেয়ারম্যান ফজলুল হক আমিনী।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সম্মেলনে আমিনী বলেন, “হে আল্লাহ! আমার ছেলেকে শেখ হাসিনার নির্দেশে গুম করা হয়েছে। তোমার কুদরতে তার ছেলেকেও তুমি গুম করে দাও।”

ইসলামী আইন বাস্তবায়ন কমিটি এই জাতীয় উলামা মাশায়েখ সম্মেলন আয়োজন করে।

সম্মেলনে নারী উন্নয়ন নীতিমালা বাতিলের দাবিতে আগামী ২৭ মে ঢাকায় মহাসমাবেশ এবং ৬ থেকে ২২ মে পর্যন্ত বিভাগীয় শহরে সমাবেশ করার ঘোষণা দেন ফজলুল হক আমিনী।

গত ১০ এপ্রিল থেকে আমিনীর ছেলে আবুল হাসনাত ‘নিখোঁজ’ রয়েছে বলে ইতিমধ্যে দাবি করেছেন আমিনী। এ বিষয়ে আমিনীর মেয়ের জামাই যুবায়ের আহমেদ গত ১১ এপ্রিল সূত্রাপুর থানায় একটি জিডিও করেন।

জিডিতে বলা হয়, ধোলাইখাল এলাকার টিপু সুলতান রোড থেকে একটি মাইক্রোবাসে তাকে তুলে নিয়ে যায় অজ্ঞাত পরিচয়ে লোক।

আমিনীর দাবি, অপহরণকারীরা সরকারি কোনো গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য।

এরপর গত সপ্তাহেও এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ছেলেকে গুম করা হয়েছে বলে দাবি করেন ইসলামী ঐক্যজোটের একাংশের এই চেয়ারম্যান।

সরকার দেশ থেকে কোরআন উৎখাতের চেষ্টা করছে বলে দাবি করে আমিনী বলেন, “সরকার কোরআনবিরোধী নারী নীতি, ফতোয়া বিরোধী হাইকোর্টের রায় বাস্তবায়ন এবং ইসলামবিরোধী শিক্ষা নীতি প্রণয়ণের মাধ্যমে এদেশ থেকে কোরআন উৎখাত করতে চাচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমেছি।”

শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, “নারী উন্নয়ন নীতিমালা নিয়ে দেশে যে আগুন জালিয়েছেন; সেই আগুনই আপনার গদি জ্বালিয়ে ছারখার করে দেবে।”

সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- খেলাফত মজলিসের আমির মুহাম্মদ ইসহাক, ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব আব্দুল লতিফ নেজামী প্রমুখ।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এআরআর/এএল/পিডি/২১৪৬ ঘ.