ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

ঢাকা, এপ্রিল ২২ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- ইসলামী ঐক্যজোটের একাংশের চেয়ারম্যান মুফতি ফজলুল হক আমিনী বলেছেন, তার ছেলেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর অবার তার আদেশেই ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ১১টার পর লালবাগের জামিয়া কোরআনিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসায় ইসলামী ঐক্যজোটের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, আমিনীর ছেলে আবুল হাসানাতকে শুক্রবার ভোরে রাজধানীর বকশি বাজার এলাকায় চোখ বাঁধা অবস্থায় রেখে যাওয়া হয়।

আমিনী অভিযোগ করে আসছিলেন, গত ১০ এপ্রিল সাদা পোশাকের পুলিশ তার ছেলেকে একটি গাড়িতে করে তুলে নিয়ে যায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তার ছেলেকে ‘গুম’ করা হয়েছে বলেও দাবি করে আসছিলেন তিনি। তবে পুলিশ বলে আসছিলো, ওই নামে কাউকে গ্রেপ্তার বা আটকের খবর তাদের কাছে নেই।

শুক্রবার সকালে ছেলেকে নিয়েই সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন আমিনী।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আমিনী বলেন, “কোরআনী আন্দোলনকে দমানোর জন্যই হাসানাতকে অপহরণ করা হয়েছিল।”

প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগ আনলেও আইনি ব্যবস্থা নেননি কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি এই আদালতে বিচার চাইবো না, আল্লাহর আদালতে বিচার চাইবো।”

আবুল হাসানাত সংবাদ সম্মেলনে বলেন, দুই থেকে তিন ধাপ সিড়ি ডিঙিয়ে উঠতে হয় এমন একটি বাড়িতে তাকে আটকে রাখা হয়েছিল। সব সময় তাকে হাতকড়া পরিয়ে ও চোখ বেঁধে রাখা হতো।

অপহরণকারীদের পরিচয় বুঝতে পেরেছেন কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, “তারা আমাকে বোঝাতে চেয়েছে, তারা একটি বাহিনীর লোক।”

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/কেটি/জেকে/১২১২ ঘ.