ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, মে ১২ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- ২০১১ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণের হার ২ শতাংশ বেড়েছে।

এ ফলাফল বৃহস্পতিবার একযোগে প্রকাশ হচ্ছে। সকালে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ফলাফল প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিকদের বলেন, এবার উত্তীর্ণের হার ৮২ দশমিক ৩১ শতাংশ। যা গত বারের চেয়ে ২ শতাংশ বেশি।

গত বছর দেশের ১০টি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণের হার ছিলো ৭৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

বেলা দেড়টায় সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করবেন।

গত ১ ফেব্র”য়ারি সারাদেশে একযোগে শুরু হয় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা।

আট শিক্ষা বোর্ড এবং মাদ্রাসা ও কারিগরী বোর্ডের অধীনে এ পরীক্ষায় ১৩ লাখেরও বেশি শিক্ষার্থী অংশ নেয়। গত বছর এ সংখ্যা ছিলো ১২ লাখ ৬ হাজার ১৯ জন।

আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এবার এসএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯ লাখ ৯১ হাজার ৮৬০ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিলো ৯ লাখ ১৬ হাজার ১৮০ জন।

আট শিক্ষা বোর্ড এবং মাদ্রাসা ও কারিগরী বোর্ডের অধীনে ১৩ লাখ ১৫ হাজার ২ জন শিক্ষার্থী এবার পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। গত বছর এ সংখ্যা ছিলো ১২ লাখ ৬ হাজার ১৯ জন।

এর মধ্যে এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষায় ৮৩ হাজার ৪৩১ জন পরীক্ষার্থী এবং আর দাখিল পরীক্ষায় ২ লাখ ৩৯ হাজার ৭১১ জন অংশ নেয়।

২ হাজার ১৮১ টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এ পরীক্ষায় ৬ লাখ ৭৮ হাজার ২৯৩ জন ছাত্র এবং ৬ লাখ ৩৬ হাজার ৭০৯ জন ছাত্রী অংশ নেয়। ২০১০ সালে ছাত্রী ছিলো ৭৮ হাজার ৩৪৭ জন।

গত বছর দেশের ১০টি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণের হার ছিলো ৭৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ। আটটি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডের কেবল এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণের হার ছিলো ৭৮ দশমিক ১৯ শতাংশ।

মোট জিপিএ-৫ পায় ৮২ হাজার ৯৬১ জন। এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছিলো ৬২ হাজার ১৩৪ জন।

২০০৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণের হার ছিলো ৬৭ দশমিক ৪১ শতাংশ। ২০০৮ সালে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় ৭০ দশমিক ৮৯ শতাংশ শিক্ষার্থী। জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিলো ৬২ হাজার ৩০৭ জন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসইউএম/এমআই/১২২৪ ঘ.