ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

ঢাকা, মে ২৯ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- আগামী অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) জন্য ৪৬ হাজার কোটি টাকা অনুমোদন করেছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ, যা চলতি অর্থবছরের চেয়ে ১৯ শতাংশ বেশি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে রোববার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের বৈঠকে আগামী অর্থবছরের (২০১১-২০১২) এডিপি বরাদ্দ অনুমোদিত হয়।

শেরে বাংলা নগরে এনইসিতে বৈঠকের পর পরিকল্পনামন্ত্রী একে খন্দকার সাংবাদিকদের বলেন, “দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন পরিকল্পনা, ষষ্ঠ পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা এবং দিনবদলের সনদের কথা মাথায় রেখেই এবারের এডিপি প্রণয়ন করা হয়েছে।”

তিনি জানান, এডিপি বরাদ্দের মধ্যে ৫৯ শতাংশ বা ২৭ হাজার ৩১৫ কোটি টাকার সংস্থান করবে সরকার। বাকি ১৮ হাজার ৬৮৫ কোটি টাকা আসবে বিদেশি সাহায্য থেকে।

আগামী ৯ জুন সংসদে অর্থমন্ত্রীর নতুন বাজেট উপস্থাপনের কথা রয়েছে।

আগামী অর্থবছরের এডিপিতে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে বিদ্যুৎ, তেল, গ্যাস ও প্রাকৃতিক সম্পদ খাতে। এ খাতে মোট এডিপির ১৮ দশমিক ০১ শতাংশ অর্থাৎ ৮ হাজার ২৮৬ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এরপরই বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে পরিবহন খাতে ১৬ দশমিক ৮৫ শতাংশ, শিক্ষা ও ধর্ম খাতে ১৩ দশমিক ৩১ শতাংশ, ভৌত পরিকল্পনা ও পানি সরবরাহ ও গৃহায়ণ খাতে ১২ দশমিক ২৮ শতাংশ এবং পল্লী উন্নয়ন ও পল্লী প্রতিষ্ঠান খাতে ৯ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, আগামী অর্থবছরের এডিপিতে মোট প্রকল্পের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৯টি। এরমধ্যে ৯৬২টি প্রকল্প চলতি অর্থবছর থেকে স্থানান্তরিত। নতুনভাবে বরাদ্দসহ অন্তর্ভুক্ত প্রকল্পের সংখ্যা ৭৭টি।

এ সব প্রকল্পের মধ্যে বিনিয়োগ প্রকল্প রয়েছে ৮৩৪টি, কারিগরি সহায়তা প্রকল্প ১৪৩টি এবং ৬২টি প্রকল্প জেডিসিএফ-এর অর্থায়নের।

চলতি অর্থবছরে মূল এডিপির আকার ছিলো ৩৮ হাজার ৫০০ কোটি টাকা, যা এবার অনুমোদিত এডিপির চেয়ে ১৯ শতাংশ কম। চলতি অর্থবছরের সংশোধিত এডিপির আকার দাঁড়ায় ৩৫ হাজার ৮৩০ কোটি টাকা। নতুন এডিপির আকার এর চেয়ে ২৮ শতাংশ বেশি।

গত অর্থবছরে (২০০৯-১০) এডিপির ৯১ শতাংশ বাস্তবায়ন হয়েছিলো জানিয়ে একে খন্দকার বলেন, “চলতি অর্থবছরের এপ্রিল পর্যন্ত এডিপি বাস্তবায়নের হার ৬০ শতাংশ। আশা করছি, অর্থবছর শেষে গতবছরের সমানই বাস্তবায়ন হবে।”

আগামী অর্থবছরে এডিপি শতভাগ বাস্তবায়নের চেষ্টা চালানোর আশা প্রকাশ করে মন্ত্রী বলেন, “যদি বৈদেশিক সহায়তা ঠিকমতো ব্যবহার করতে পারি, তাহলে এডিপির শতভাগ বাস্তবায়ন সম্ভব হবে।”

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/আরবি/এমআই/১৬১৫ ঘ.