ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, মে ৩১ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- কারাগার থেকে বের হওয়ার পর এক তরুণকে ধরে নিয়ে গুম করার অভিযোগে র‌্যাবের বিরুদ্ধে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার বিকালে মহানগর হাকিম এমএ সালাম বাদির বক্তব্য গ্রহণ করে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেন।

মো. খবিরউদ্দিন নামে এক আইনজীবী সকালে একই আদালতে মামলাটি করেন।

খবিরের অভিযোগ, তার ছেলে ঢাকার স্ট্যাম্পফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তৌফিক আহমেদ হাসানকে র‌্যাব গুম করেছে।

মামলায় র‌্যাবের দুই কর্মকর্তার পাশাপাশি দুই কারা কর্মকর্তাকেও আসামি করা হয়েছে।

তারা হলেন- র‌্যাব-১০ এর উপসহকারী পরিচালক মোহাম্মদ হারুন, ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মোহাম্মদ ইমন, ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জ্যেষ্ঠ কারারক্ষক তৌহিদুল ইসলাম এবং উপকারারক্ষক মো. ইমরান হোসেন।

হাসান একটি মামলার আসামি। গত ১৩ মে জামিনে কারাগার থেকে বের হওয়ার পরপরই তাকে র‌্যাব ধরে নিয়ে যায় বলে খবিরের অভিযোগ।

হাসানকে ধরে নেওয়ার অভিযোগ র‌্যাব স্বীকার করছে না বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন খবির। তিনি বলছেন, পুলিশ ও কারাকর্মীদের সূত্রে তিনি জানতে পেরেছেন- তার ছেলেকে র‌্যাব সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, “রাত ১০টায় মুক্তি পাওয়ার পর ৪/৫ জন সাদা পোশাকধারী লোক একটি মাইক্রোবাস থেকে নেমে হাসানকে ওই বাসে তুলে নিয়ে যায়।”

নিষিদ্ধ সংগঠন হিযবুত তাহরীরের পক্ষে প্রচার চালানোর অভিযোগে গত ২২ ফেব্র”য়ারি রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী বালুর মাঠ এলাকা থেকে হাসানকে গ্রেপ্তার করা হয়। সেদিনই রমনা থানায় তৌফিকসহ তিনজনের বিরুদ্ধে রমনা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা হয়।

গত ৪ মে তৌফিকের জামিন অনুমোদন করে হাইকোর্ট।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/পিবি/আরএ/পিডি/১৭৪৭ ঘ.