ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, জুন ২৩ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- হরতালের গুঞ্জন থাকলেও কোকোর বিরুদ্ধে রায়ের পর আগামী ২৬ জুন সারাদেশে নির্যাতন বিরোধী দিবস পালনের কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছে প্রধান বিরোধী দল বিএনপি।

বৃহস্পতিবার ঢাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব র্মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

২৮ জুন আন্দোলনের বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলেও জানান তিনি।

দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যাান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা’ মামলা, মুদ্রাপাচার মামলায় আরাফাত রহমান কোকোকে সাজা প্রদানসহ জিয়াউর রহমানের পরিবারের বিরুদ্ধে ‘নির্যাতন ও বিদ্বেষ’ প্রদর্শনের অভিযোগ এনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

দলীয় সূত্রের বরাত দিয়ে বৃহস্পতিবার একাধিক জাতীয় দৈনিকে খবর বেরোয় যে, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিলের সরকারি উদ্যোগের প্রতিবাদে বিএনপি ও এর জোট শরিক জামায়াতে ইসলামী আজকালের মধ্যে পৃথকভাবে হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা করতে পারে। তাই কয়েকদিন ধরে বিএনপির হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা নিয়ে ব্যাপক গুঞ্জন চলছিল।

এর আগে বিএনপি-জামায়াত গত ৫ জুন সকাল-সন্ধ্যা এবং ১২ ও ১৩ জুন টানা ৩৬ ঘন্টার হরতাল কর্মসূচি পালন করে।

বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত দলের নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের কাছে কেমন আন্দোলন চান জানতে চাইলে তারা সমস্বরে ‘হরতাল, হরতাল’ শ্লোগান দিলে মির্জা ফখরুল বলেন, “আপনাদের মতামত দেশনেত্রীর (খালেদা জিয়া) কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে।”

মুদ্রাপাচারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বৃহস্পতিবার ঢাকার একটি আদালত খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে । সেইসঙ্গে ১৯ কোটি টাকা জরিমানা করা হয়। এ রায় প্রত্যাখ্যান করে তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ করেন বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা।

কোকোর অনুপস্থিতিতেই মুদ্রাপাচার মামলায় তাকে এ দণ্ডাদেশ দেন ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. মোজাম্মেল হোসেন।

সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় গ্রেপ্তারের পর খালেদা জিয়া ও তার দুই ছেলের বিরুদ্ধে ডজনখানেক মামলা হলেও রায় এটাই প্রথম।

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুঁজিবাজার কেলেঙ্কারিতে জড়িতদের বিচারের দাবিতে ঢাকা ও চট্টগ্রামে এই বিক্ষোভ সমাবেশ করে বিএনপি। গত ১৫ জুন ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল তিনদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব জানান, ৫৬ নম্বর ওয়ার্ড কমিশনার নিখোঁজ চৌধুরী আলমের উদ্ধারের দাবিতে আগামী ২৫ জুন নয়া পল্টনে বিক্ষোভ সমাবেশ করবে বিএনপি।

এছাড়া ২৮ জুন পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী জ্বালানি তেল, গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি ও যানবাহনের ভাড়া বাড়ানোর প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভ সমাবেশ করবে দলটি। ওই কর্মসূচির পর আন্দোলনের পরবর্তি কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে জানান মির্জা ফখরুল।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসএম/এইচএ/১৯০০ ঘ.