ক্যাটেগরিঃ bdnews24

লিটন হায়দার
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

ঢাকা, অগাস্ট ০২ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- বাবা-মায়ের ‘প্রকৃত’ পরিচয় নির্ধারণে আদালতের নির্দেশে এক নবজাতকের লাশ কবর থেকে তুলে নমুনা সংগ্রহ করেছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের উপপরিচালক মো. আজিম উদ্দিন ও তার স্ত্রী রওশন আরা ইয়াসমীন তাদের জীবিত সন্তানকে ‘চুরি’ করে একটি মৃত নবজাতককে হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগে স্কয়ার হাসপাতালের দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা করলে আদালত এই আদেশ দেয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানার উপ পরিদর্শক কাজী শাহান হক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “তদন্ত চলছে। ডিএনএ টেস্টের জন্য মঙ্গলবার নবজতাকের লাশ কবর থেকে তুলে নমুনা সংগ্রহ করে আবার দাফন করা হয়েছে।”

বুধবার মো. আজিম উদ্দিন ও তার স্ত্রীর ডিএনএ পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হবে জানিয়ে তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, “প্রতিবেদন পাওয়ার পর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক ডা. নার্গিস ফাতেমার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তার আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন।

আজিম উদ্দিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় কয়েক মাস আগে তার স্ত্রীর আলট্রাসনোগ্রাম করা হয় ইবনে সিনা হাসপাতালে। মা ও গর্ভের শিশু সুস্থ রয়েছে বলে প্রতিবেদন দেয় তারা। পরে স্কয়ার হাসপাতালে আলট্রাসনোগ্রাম করা হলে সেখানেও একই প্রতিবেদন আসে।

কিন্তু স্কয়ার হাসপাতালের আলট্রাসনোগ্রাম বিশেষজ্ঞ ডা. দেবযানি সানিয়েল পরে তাদের জানান, আবারো রওশন আরার আলট্রাসনোগ্রাম করাতে হবে। দ্বিতীয় দফা পরীক্ষার পর রওশন আরার গর্ভের সন্তানের বিভিন্ন সমস্যার কথা বলেন ওই চিকিৎসক।

২২ জুলাই রাতে ডা. নার্গিস ফাতেমা অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সন্তান প্রসব করান। আজিম উদ্দিনের অভিযোগ, তার স্ত্রী শিশুর কান্নার শব্দ শুনলেও তাকে না দেখিয়ে প্রায় পৌনে দুই ঘণ্টা পর জানানো হয়, তিনি একটি মৃত পুত্র সন্তান প্রসব করেছেন।

এরপর তাৎক্ষণিকভাবে মৃতদেহ দেখতে না দেওয়ায় এবং কম্পিউটারের সমস্যার কথা বলে ডেথ সার্টিফিকেট দিতে দেরি করায় সন্দেহ আরো বাড়ে বলে আজিম উদ্দিন জানান।

জীবিত নবজাতক চুরির অভিযোগ এনে স্কয়ার হাসপাতালের ওই দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে গত ২৬ জুলাই একটি মামলা করেন আজিম উদ্দিন। তার আবেদনে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত শিশুটির লাশ তুলে ডিএনএ পরীক্ষার নির্দেশ দেয়।

এই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার আজিমপুর কবরস্থান থেকে লাশ তুলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে নিয়ে নমুনা সংগ্রহ করা হয় বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে ডা. নার্গিস ফাতেমার সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমি এ ব্যাপারে কোনো কথা বলবো না। প্রয়োজনে আপনি আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলেন।”

এরপর লাইন কেটে দেন তিনি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোররডটকম/এলএইচ/জেকে/০১৫১ ঘ.