ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, অগাস্ট ১৮ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার অভিযোগে নিজ দলে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়া যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন বলেছেন সমালোচনায় উপকার হবে।

বৃহস্পতিবার রেলওয়ের এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী সাংবাদিকদের কাছে তার কৃতিত্ব বর্ণনা করে আরো বলেছেন, রেল খাতে বর্তমান সরকার বিগত একশ’ বছরের মধ্যে বেশি কাজ করেছে।

মহাসড়কের বেহাল দশার জন্য আবারো ‘অপ্রতুল’ অর্থবরাদ্দকে দায়ী করে মন্ত্রী আবুল হোসেন এবার আবহাওয়াকেও এর জন্য দুষেছেন।

বৃহস্পতিবার রেলভবনে লাকসাম-চাঁদপুর রেললাইন সংস্কার প্রকল্প ও পুনর্বাসন বিষয়ে একটি চুক্তি সাক্ষর অনুষ্ঠানশেষে সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, “আল্লাহ যেন সহায় করেন, সমালোচনার মাধ্যমে উপকার হয়। সকলে আমার প্রতি সহানুভূতিশীল হবেন এটাই আমি আশা করি।”

এই অনুষ্ঠানের পর সংসদে উপস্থিত হয়ে আবুল হোসেন নিজ দলীয় সংসদ সদস্যের তোপের মুখে পড়েন। মহাজোটের শরিক ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী দাবি করেন, বিগত ১৫ বছরের মধ্যে সর্বাধিক বৃষ্টি হওয়ায় রাস্তা-ঘাট ভেঙে গেছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, ১৯৮০ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত বর্ষা মৌসুমে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয় ২০০৪ সালে। ওই বছর সারাদেশে সর্বমোট ৬৯ হাজার ৯০৫ মিলিমিটার (মিমি) বৃষ্টিপাত হয়।

শুধু জুন মাসে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয় ২০০১ সালে। ওই বছর জুন মাসে ২৪ হাজার ৭০৮ মিমি। চলতি বছর জুন মাসে বৃষ্টিপাত হয় ১৬ হাজার ৬৪৮ মিমি।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, এ বছর জুলাই মাসে স্বাভাবিকের চেয়ে ১৮ শতাংশ কম মোট বৃষ্টিপাত হয়েছে। গত ১৫ বছরের মধ্যে শুধু জুলাই মাসে সবচেয়ে বেশি ২৩ হাজার ৪১৫ মিমি বৃষ্টিপাত হয় ২০০৭ সালে।

মন্ত্রী আরো বলেন, “রাস্তাঘাট খারাপ থাকায় ঈদে রেলের উপর চাপ পড়বে। এজন্য বিভিন্ন রুটে অতিরিক্ত রেল দেওয়া হবে।”

রাস্তাঘাট সংস্কার না হওয়ার জন্য ‘অপ্রতুল’ অর্থ বরাদ্দ দেওযা হয়েছে দাবি করে মন্ত্রী আরো বলেন, বুধবার অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে ৬৯০ কোটি টাকা ছাড় দেওয়া হয়েছে। কাজ পুরোদমে চলছে, যদিও রাস্তা মেরামতের জন্য ৫ হাজার একশ’ কোটি টাকা প্রয়োজন।

এর আগে মন্ত্রিসভার বৈঠকে যোগাযোগমন্ত্রীর এই কথা সঠিক নয় বলে মন্তব্য করেছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মহিত।

আবুল হোসেন সংস্কার কাজ না করার কারণ হিসেবে বরাদ্দের অপ্রতুলতার কথা তুললে তা নাকচ করে মুহিত বলেন, তদারকির অভাবই এর কারণ।

মহাসড়কের বেহাল দশার কারণে স¤প্রতি রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে গাজীপুর হয়ে ১৩টি রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন পরিবহন মালিকরা। শনিবার মানিকগঞ্জে এক সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ ও এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আশফাক (মিশুক) মুনীরসহ পাঁচজনের মৃত্যুর পর সড়কগুলোর অবস্থা নতুন করে আলোচনায় আসে। এরপর যোগাযোগমন্ত্রীকে অপসারণের দাবি ওঠে বিভিন্ন মহল থেকে।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসএইচএ/এমএইচসি/কিউএইচ/পিডি/১৭২৩ ঘ.