ক্যাটেগরিঃ bdnews24

 

ঢাকা, অগাস্ট ২৬ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিরা যে সব দেশে রয়েছে, সে সব দেশের ঢাকা দূতাবাসের সামনে অনশনে বসার ঘোষণা দিয়েছেন চিত্রতারকা ফারুক।

পলাতক খুনিদের দেশে এনে তাদের দণ্ড কার্যকরের বিষয়ে সরকারের কার্যক্রমেও অসন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এক সময়ের চলচ্চিত্র নায়ক ফারুক আহমেদ বলেন, “বিদেশে থাকা খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে সরকার কী কী উদ্যোগ নিচ্ছে, তা আমরা বুঝতে পারছি না। তাই আমরা ব্যাপারটা সবাইকে মনে করিয়ে দিতে চাই।”

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট সপরিবারে হত্যা করা হয়। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে ২০১০ সালের ২৮ জানুয়ারি মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত পাঁচ আসামিকে ফাঁসিতে ঝোলানো হয়।

তবে বিভিন্ন দেশে পালিয়ে আছেন মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত আরো ছয় জন। তারা হলেন- আব্দুর রশিদ, শরিফুল হক ডালিম, এস এইচ এম বি নূর চৌধুরী, মোসলেমউদ্দিন, রাশেদ চৌধুরী ও আব্দুল মাজেদ।

পলাতক খুনিদের দেশে এনে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের দাবিতে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত মানববন্ধনে অনশনের ঘোষণা দেন ফারুক।

তিনি বলেন, “”সময় অনেক গড়িয়ে গেছে। যে সব দেশে খুনিরা লুকিয়ে আছে, সে সব দেশের দূতাবাসগুলোর সামনে আমরা অনশন করবো।”

মানববন্ধনে অংশ নেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা রফিকুল ইসলাম মৃধা ও ঢাকা জেলা শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক হুমায়ূন কবির, আবাহনী লি. এর পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

তারা অবিলম্বে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে এনে দণ্ড কার্যকরের দাবি আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এমএমআর/এমআই/১২১১ ঘ.