ক্যাটেগরিঃ bdnews24

গাজীপুর, অগাস্ট ৩১ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- ‘দ্রুততম সময়ে’ সড়ক সংস্কারের মাধ্যমে ‘অসাধ্য সাধন’ করেছেন বলে দাবি করেছেন যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন। ‘সাধুবাদ’ চাওয়ার পরদিন এ দাবি করলেন তিনি।

বুধবার তিনি বলেছেন, “মহাসড়কের যেখানে কোমড় পানি ছিলো, সেখান দিয়ে আজ গাড়ি চলছে। আর এ কারণেই মানুষ ঈদের আগে ঘরে ফিরতে পেরেছে। তারা আনন্দ ও উৎসাহের সঙ্গে ঈদ করছে। বাড়ি পৌঁছাতে কারো কোনো অসুবিধা হয়নি।”

ঈদের দিন দুপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক সংস্কার কাজ ও যাত্রীদের যাতায়াত ব্যবস্থা সরজমিনে পরিদর্শনে এসে যোগাযোগমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আবুল হোসেন বলেন, “ঈদের দিনেও রাস্তায় কাজ হচ্ছে। আমি রাস্তায় কাজ দেখতে এসেছি। আর আপনারা (সাংবাদিকরা) এসেছেন আমাকে দেখতে।”

এসময় মন্ত্রী মহাসড়ক সংস্কারের জন্য সবাইকে প্রশংসা করতে বলেছেন। রাস্তায় নিন্মমানের কাজ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে মন্ত্রী বলেন, “এটাই শেষ কাজ নয়, আরো কাজ হবে।”

দুপুর পৌণে ৩টার দিকে গাজীপুরের চান্দনা-চৌরাস্তা এলাকায় মন্ত্রী সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

সড়ক মেরামতে ‘অক্লান্ত পরিশ্রম’ করায় তার ‘সাধুবাদ’ পাওয়া উচিত বলে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেছিলেন যোগাযোগমন্ত্রী।

বেহাল মহাসড়কের কারণ দেখিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে চলতি মাসে সপ্তাহখানেক বাস চলাচল বন্ধ রেখেছিলেন মালিকরা। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর ধমক শুনে সড়ক পর্যবেক্ষণে যান যোগাযোগমন্ত্রী। পরবর্তীতে সড়ক পরিস্থিতি নিয়ে দলে এবং দলের বাইরে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েন সৈয়দ আবুল হোসেন।

ক্ষমতাসীন জোটের সাংসদ রাশেদ খান মেনন সংসদে তার পদত্যাগও দাবি করেন।

এক পর্যায়ে বেহাল সড়কের জন্য জনগণের কাছে দুঃখপ্রকাশ করে তিনি ‘স্যরি’ বলেন। এর আগে তিনি সবার ‘সহানুভূতিও’ চেয়েছিলেন।

ওই সমলোচনামুখর সময়ে পদত্যাগ করেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী।

যোগাযোগমন্ত্রীর সড়ক পরিদর্শনের সময় যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাসের, সড়ক ও জনপথ বিভাগ-সওজ এর প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল কুদ্দুস, সওজ ঢাকা অঞ্চলের তত্ত্বাবধায়ক শাহাবুদ্দি খান, সওজ গাজীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ সফিকুল আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে যোগাযোগমন্ত্রীর পদচ্যুতির দাবিতে ঈদের দিন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ‘ছাত্র-শিক্ষক-পেশাজীবী-জনতা’ নামের একটি সংগঠন। আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর এই দাবিতে তারা সারাদেশে মহাসড়কে অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে। যদি এই সময়ের মধ্যে যোগাযোগমন্ত্রীকে পদচ্যুত করা না হয় তাহলে তারা ধাপে ধাপে শহীদ মিনারে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

যোগাযোগন্ত্রী ইতোপূর্বে গত ১৬ অগাস্ট, ২০ অগাস্ট ও ৩০ অগাস্ট তিন দফা মহাসড়ক সংস্কার কাজ পরিদর্শনে গাজীপুর আসেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/সিএস/পিডি/২০৩৪ ঘ.