ক্যাটেগরিঃ bdnews24

ঢাকা, সেপ্টেম্বর ০৯ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- আপাতত সড়ক সংস্কার কাজে সন্তুষ্ট হলেও দেশের সব রাস্তা মেরামত করতে ‘আরো সময় লাগবে’ বলে জানিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী আবুল হোসেন।

শুক্রবার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের সংস্কারকাজ পরিদর্শনের সময় সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

মন্ত্রীর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিলো দেশের সব সড়ক সংস্কারে কতো সময় লাগতে পারে। এর জবাবে তিনি বলেন, “আমরা ভেবেছিলাম এ সরকারের মেয়াদেই কাজ শেষ হবে।”

গত রোজায় ঢাকা-ময়নসিংহ মহাসড়ক সংস্কারের দাবিতে ১৩টি রুটে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেন পরিবহন মালিকরা। এরই মধ্যে গত ১৩ অগাস্ট সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ ও এটিএন নিউজের সিইও মিশুক মুনীরসহ পাঁচ জন। এই পরিস্থিতিতে সড়কের নাজুক অবস্থা নিয়ে সরকারের ভেতরে ও বাইরে চাপে পড়েন যোগাযোগ মন্ত্রী।

অবশ্য সড়কের এই পরিস্থিতির জন্য শুক্রবার সাংবাদিকদের কাছে বিগত সরকারকেই দায়ী করেন আবুল হোসেন।

তিনি বলেন, “মহাসড়কের এই দুরাবস্থার জন্য বিগত সরকারই দায়ী। তবে অপরিকল্পিত ড্রেনেজ সিস্টেম এই রুট সংস্কারের সবচেয়ে বড় বাধা।”

এ জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নে রাস্তার দুই পাশে নতুন ৪ ফুট প্রশস্ত আন্ডারগ্রাউন্ড পাইপ বসানোর কাজ চলছে বলে জানান মন্ত্রী।

আবুল হোসেন বলেন, “সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীনে মহাসড়কের ৩ ও ৪ নম্বর লেনের কাজ চলছে। তবে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের কাগজপত্র জালিয়াতি এবং মামলার কারণে থেমে আছে ১ এবং ২ নম্বর লেনের কাজ।”

এ কারণে ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়ক সংস্কারের দায়িত্বে নিয়োজিত ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে অন্যদের মধ্যে সওজের প্রধান প্রকৌশলী আব্দুল কুদ্দুস, সওজের ঢাকা অঞ্চলের তত্ত্বাবধায়ক শাহাবুদ্দিন খান, সওজ গাজীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ সফিকুল আলম উপস্থিত ছিলেন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/এসডব্লিউ/প্রতিনিধি/এএল/১৭০৮ ঘ.